সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন ও তার সহধর্মিনী প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের পরিচালক গুলশান আরা’র নামে ‘কামাল-গুলশান’ শিশুতোষ পাঠাগার স্থাপন করেছে সরকার স্বীকৃত জেলার শ্রেষ্ঠ জাতীয় শিশু – কিশোর সংগঠন ঝিনুকমালা খেলাঘর আসর। এটি কক্সবাজারে শুধু শিশুদের জন্য করা প্রথম শিশুতোষ পাঠাগার। ৫ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে ‘কামাল-গুলশান’ শিশুতোষ পাঠাগার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন।

ঝিনুকমালা খেলাঘর আসরের প্রশিক্ষণ একাডেমিতে এ শিশুতোষ পাঠাগার স্থাপন করা হয়। এসময় ঝিনুকমালা খেলাঘর আসরের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক দীপক শর্মা দীপু বলেন, জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন কক্সবাজারে শিশুদের দাবি পূরন করেছেন, দিয়েছেন অমুল্য সম্পদ। শিশুদের জন্য শিশু পার্ক, শিশু হাসপাতাল, অরুণোদয় স্কুল করেছেন। ডিসি কলেজ করেছেন কিশোরদের জন্য। এসব প্রতিষ্ঠান গড়ার নেপথ্যের কারিগর তার সহধর্মিনী গুলশান আরা। এতকিছু যারা করেছেন তার দায়বদ্ধতা থেকে জেলা প্রশাসক কামাল হোসেনের নামে ও তার সহধর্মিনী গুলশান আরা’কে আমাদের ভালবাসার প্রেমে বন্দী করে রাখার জন্য তাদের নামে শিশুতোষ পাঠাগার স্থাপন করা হয়। এসময় জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন বলেছেন, কত আর করেছি, মনে হয় এই যেন কিছু নয়। কেন আরো বেশি কিছু করতে পারিনি, আফসোস হয়। কক্সবাজারের মানুষের কত ভালবাসা পেয়েছি , বিনিময়ে তেমন কিছু দিতে পারিনি। আমাদের নামে শিশুতোষ পাঠাগার করাই শিশুদের জন্য আমার পরিবারের দায়বদ্ধতা বেড়ে গেল। মন পড়ে রবে কক্সবাজারে।

শিশু শিল্পী চৌধুরী তুর্না বড়ুয়া ও সাবিহা সুলতানা জিপার সঞ্চালনায় ঝিনুকমালার সভাপতি সুবিমল পাল পান্নার সভাপতিত্বে অনষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, বিদায়ী অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) মো: মাসুদুর রহমান মোল্লা, দৈনিক কালের কন্ঠের বিশেষ প্রতিনিধি সিনিয়র সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ, কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাছির উদ্দিন, ঝিনুকমালার সাবেক সভাপতি ও জেলা খেলাঘর আসরের সাবেক সাধারণ সম্পাদক পৌর কাউন্সিলর আশরাফুল হুদা সিদ্দিকী জামশেদ, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক বিশ^জিত পাল বিশু , ঝিনুকমালা প্রশিক্ষণ একাডেমির পরিচালক ডা: চন্দন কান্তি দাশ।

অনুষ্ঠানে শিশুরা জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেনকে ফুলে ফুলে পুষ্পিত করেন, মাথায় তাজ পরিয়ে শিশুদের মহারাজা বলে সম্বোধন করেন, গানে গানে রাঙিয়ে দেন অনুষ্ঠান। শিশুরা উষ্ণতায় অভিসিক্ত করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •