সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:

সকলের অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে,১) যেহেতু তথাকথিত এডহক কমিটি গঠনের বিরুদ্ধে নির্বাচিত কমিটির পক্ষ থেকে মহামান্য সুপ্রীম কোর্টে দায়েরকৃত মামলার শুনানি দিন ধার্য আছে (আগামী ১৭ই জানুয়ারি ২০২১)। এ অবস্থায় নির্বাচনের আয়োজন করা মোটেও সমীচীন নয়।

২) রাতের অন্ধকারে ভোটার করার প্রক্রিয়া চলছে, যা সম্পূর্ণ বেআইনী। পৃথিবীর কোন প্রতিষ্ঠানে নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা ও চুড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশের পর সদস্যভুক্তি করেনা, করা বেআইনী। ভোটার করার তো প্রশ্নই উঠেনা।

৩) রেড ক্রিসেন্ট এর বিধান অনুযায়ী নির্বাচনের বছর ৭ই ডিসেম্বর এরপর কোন নির্বাচন হতে পারে না। কোন কারণে নির্ধারিত ৭ই ডিসেম্বর নির্বাচন করা না হলে পরবর্তী বছর ৭ই ডিসেম্বর নির্বাচন করতে হবে। ইতোমধ্যে অন্ত বর্তী কমিটি গঠন বা পূর্বের কমিটির মেয়াদ বৃদ্ধি করা যেতে পারে।

৪) সমাস্ত নিয়ম কানুন, আইন ও বিধিমালা লংঘন করে শুধুমাত্র দূর্লোভের বশবর্তী হয়ে, বিচারাধীন অবস্থায় প্রশ্নবিদ্ধ এডহক কমিটি দ্বারা যে ঘৃণ্য তৎপরতা শুরু হয়েছে তা সর্বশক্তি দিয়ে প্রতিরোধ করার জন্য রেড ক্রিসেন্টের সদস্য বৃন্দ ও অনুরাগীরা সোচ্চার ও ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন। তাঁরা পদাধিকার বলে অধিষ্ঠিত সভাপতি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এর কাছে সুষ্পষ্ট ব্যাখ্যা চেয়েছেন। উপরন্ত কিছু অফিসারের কুপরামর্শে তিনি (সভাপতি) নির্বাচিত কমিটির সাথে সারা বছর কাজ করে শেষ দিকে এসে যে অভিযোগ করেছেন তা প্রমান করার দাবী জানাচ্ছি।

প্রমান করতে ব্যর্থ হলে রেড ক্রিসেন্টের অভ্যন্ততরীন বিশৃঙ্খলা ও আওয়ামীলীগের কমর্ীদের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টির দায় দায়িত্ব তিনি এড়াতে পারবেন না। আমরা অলিম্বে বেআইনী ও যোগ সাজসী নির্বাচন বাতিল করে সমস্ত বিষয়ে নিরপেক্ষ তদন্ত অনুষ্ঠানে দাবী জানাচ্ছি এবং সুনির্দিষ্টভাবে দুর্নীতিবাজে ষড়যন্ত্রের মুল হোতা টখঙ আজরুল সাফদার কে ৭২ ঘন্টার মধ্যে প্রত্যাহারের দাবী জানাচ্ছি।

ইতোমধ্যে জাতীয় সদর দপ্তরের পরিপত্রের নির্দেশনা অনুযায়ী নির্বাচিত কমিটি দ্বারা (ভেঙে দেওয়া আগে) যে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছিলো, সেই নির্বাচন কমিশন বিনা বাধায় যে কার্যাবলী সম্পন্ন করেছেন তা সুসম্পন্ন করার ব্যাপারে সকলের সহযোগীতা কামনা করছি।

উল্লেখ্য যে, সেই নির্বাচন কমিশন সময়ে সময়ে সমস্ত অগ্রগতি জাতীয় সদর দপ্তরকে অবহিত করে চলছেন।

১। নুরুল আবছার (চেয়ারম্যান)

২। আবু হেনা মোস্তফা কামাল (সাধারণ সম্পাদক)

৩। মোহাম্মদ হোসাইন (সদস্য)

৪। জহিরুল ইসলাম (সদস্য)

৫। তাপস রক্ষীত (সদস্য)

৬। জয়নাল আবেদীন (সদস্য)

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •