সিবিএন ডেস্ক:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা যারা রাজনীতি করি, তাদের জন্য ক্ষমতার চেয়ার ও কারাগার পাশাপাশি থাকে। যেটা খুবই স্বাভাবিক। ২০০৭ সালে ক্ষমতা ছাড়াও কিন্তু সবার আগে আমাকেই গ্রেফতার করা হয়েছে। রাজনীতি করতে গেলে জেলে যেতে হতে পারে সেটা জানি।

রোববার (২৭ ডিসেম্বর) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কাশিমপুর কারাগারের নারীদের জন্য পৃথক কারাগার ও এলপি গ্যাস স্টেশনের উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, নানা অপরাধে যারা জেলে যায় তাদের পরিবার অনেক কষ্ট ভোগ করে থাকে। তাদের কথা বিবেচনা করে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে জেলে থাকা কয়েদিদের বিভিন্ন উৎপাদনখাতে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। প্রশিক্ষণ নিয়ে অনেকেই বিভিন্ন পণ্য উৎপাদন করছে। যার প্রাপ্ত অর্থের অর্ধেক কয়েদিদের দেয়া হচ্ছে কিংবা জমা রাখা হচ্ছে। সেই টাকা তারা নিজের কাছেও রাখতে পারেন আবার পরিবারের কাছে পাঠাতে পারেন।

কারাগার থেকে বেরিয়ে যেন আগের মতো অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে না পড়ে, সে লক্ষ্যেই কারাগারগুলোতে প্রশিক্ষণ ও বসবাসস্থলের মান উন্নয়ন করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সরকার প্রধান বলেন, নাজিমউদ্দিন রোডের জেলখানা কেরানীগঞ্জে স্থানান্তর করায় নারী কয়েদিদের গাজীপুরের কাশিমপুরে রাখা হতো। এখন কেরানীগঞ্জে নারীদের জন্যও পৃথক কারাগার স্থাপিত হয়েছে। তাই নারী কয়েদিদের নতুন কারাগারে নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •