cbn  

শেফাইল উদ্দিন, কক্সবাজার সদর:

কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁওতে মহাসড়কের উপরে দীর্ঘদিন ধরে চলছে গরু বাজার। বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। অন্যদিকে ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করছে সাধারণ জনগণ ও শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, কক্সবাজার সদর উপজেলার বৃহত্তর ঈদগাঁও বাজার ও বাস স্টেশনে ব্যাংক,হাসপাতাল, বিভিন্ন মার্কেট,সপিংমলসহ প্রায় ৮ হাজারের ও অধিক ছোট বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। অন্যদিকে বাস স্টেশনের ও পার্শবর্তী এলাকায় রয়েছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টান। ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, কিশলয় আদর্শ শিক্ষা নিকেতন, আলমাছিয়া ফাজিল মাদ্রাস, দারুল পাতা  একাডেমি, জাহানারা বালিকা বিদ্যালয়, অরবিট মডেল স্কুল।

সংলগ্ন ঈদগাও বাসষ্টেশন, অদুরে ঈদগাও পুলিশ তদন্তকেন্দ্র। এ সবকে ঘিরে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন আবাসিক এলাকা। সব মিলে এটি একটি ব্যস্ততম উপ শহরে পরিনত হয়েছে। কিন্তু এদিকে বাস স্টেশন সংলগ্ন মহাসড়ক দখল করে দীর্ঘদিন ধরে বসছে গরু বাজার ।

কক্সবাজার পর্যটন নগরী প্রবেশদ্বার মহাসড়কের ঈদগাঁও বাসষ্টেশন। বাস স্টেশশন সংলগ্ন মহাসড়কে এই গরু বাজার। যেকোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। ঈদগাও,ইসলামপুর, পোকখালী ,ভারুয়াখালী,জালালাবাদ চৌফলন্ডী ইউনিয়নসহ পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন এলাকার লক্ষাধিক মানুষ দৈনিক যাতায়াত করেন ঈদগাঁওতে । এছাড়াও বাইশারী, ঈদগড় নাইক্ষ্যংছড়ির, ডুলহাজারা, খুটাখালী,রামু, রশিদনগর, জোয়ারিয়ানালা এলাকার বিপুল সংখ্যক মানুষ গরু নিয়ে আসেন বিক্রির জন্য। ফলে ব্যস্ততম মহাসড়কটিতে অতিরিক্ত মানুষ ও পশু বোঝাই গাড়ির অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি হয়। এতে করে বাজারটি প্রধান সড়কের বড় একটি অংশ দখল করে নিয়েছে গরু বাজার। তাই সড়কটিতে তীব্র যানজট সৃষ্টি হচ্ছে ।

অন্যদিকে বড়় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেে স্থানীয়রা ।

পার্শ্ববর্তী মেহের কোন এলাকার নুরুল আলম, গরু বাজার এলাকার জসিম উদ্দিনসহ আরো জানান, আমরা পার্শ্ববর্তী লোকজন এবং আমাদের ছেলেমেয়েদের স্কুলে পাঠাতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি । গরু বাজারটি অন্যত্র সরিয়ে নিতে প্রশাসনের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করছি ।

এই ব্যাপারে কক্সবাজার সদর উপজেলাা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে কথা হলে তিনি বিষয়টি দেখবেন বলে জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •