মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

র‍্যাব-১৫ এর পৃথক ২ টি অভিযানে প্রায় এক কোটি টাকার ১৯৬৩০ পিচ ইয়াবাসহ সহ তিন জন ইয়াবাকারবারীকে আটক করা হয়েছে। ১৯ ডিসেম্বর শনিবার এ ২টি অভিযান চালানো হয়।

র‍্যাব-১৫ এর সহকারী পুলিশ সুপার ও সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

১৯ ডিসেম্বর শনিবার ১১ টার দিকে টেকনাফ পৌরসভার কাইউক খালী পাড়ার বাঁশের গুদামের সামনে র‍্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে অটোরিকশা ও মটর সাইকেল নিয়ে পালানোর সময় টেকনাফের পেন্ডল পাড়ার আবদুস সালামের পুত্র হেলাল উদ্দিন (২৭) ও রুহুল্লা পাড়ার হোসন আহমেদের পুত্র নুর মোহাম্মদ (২০) কে র‍্যাব-১৫ এর সদস্যরা আটক করে। পরে তাদের স্বীরাকারোক্তি মতে, মটর সাইকেল এর সীটে নীচ থেকে ৯৬৫০ পিচ ইয়াবা টেবলেট উদ্ধার করা হয়।
ধৃত ২ জন ইয়াবাকারবারীকে পরে টেকনাফ মডেল থানায় পরবর্তী আইনী প্রক্রিয়ার জন্য উদ্ধার করা ইয়াবা টেবলেট, মটর সাইকেল ও ই-বাইক সহ হস্তান্তর করা হয়।

একইদিন বেলা ২ টার দিকে রামু-মরিচ্যা পুরাতন বাইপাস সড়কের পুলিশ বক্সের সামনে থেকে রামু’র কাউয়ার খোপ ইউনিয়নের পূর্ব পাড়ার শামশুল আলমের পুত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম (২৫) কে পালানোর সময় র‍্যাব-১৫ সদস্যরা আটক করে। পরে তার দেহ তল্লাশী করে, তার কাছে থাকা শপিং ব্যাগ থেকে ৯৯৮০ পিচ ইয়াবা টেবলেট উদ্ধার করা হয়।

আটক ইয়াবাকারবারীকে পরে রামু থানায় পরবর্তী আইনী প্রক্রিয়ার জন্য উদ্ধার করা ইয়াবা টেবলেট সহ হস্তান্তর করা হয়।

উভয় অভিযানে উদ্ধার হওয়া ১৯৬৩০ পিচ ইয়াবা টেবলেট এর মূল্য প্রতি পিচ ৫০০ টাকা হিসাবে মোট ৯৮ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা।

আটককৃত ইয়াবাকারবারীত্রয় দীর্ঘদিন ধরে টেকনাফের সীমান্ত এলাকা থেকে ইয়াবা টেবলেট এনে সারাদেশে বেচাবিক্রি করত বলে র‍্যাব-১৫ এর প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •