জিয়াবুল হক, টেকনাফ :

টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের মিনা বাজার টেক পাড়া এলাকায় পূর্ব শুক্রতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় মা-ছেলে আহত হয়েছে। এতে গুরুতর আহত ছেলেকে উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনায় ১৯ ডিসেম্বর টেকনাফ মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের মিনা বাজার টেক পাড়া এলাকার মো. হাসানের মেয়ে নয়াবাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ শ্রেনীর ছাত্রী কে প্রতিদিন বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া পথে বিভিন্ন কু-প্রস্তাব ও ইভটিজিং করে আসছে। মেয়ে বাড়িতে ফিরে বিষয়টি বাবা-মাকে বলেন। পরে স্থানীয় গন্যমান্য বক্তিদের বিচার দিলেও অপরাধীরা সমাজের প্রভাবশালী হওয়ায় মেয়েটির পরিবার বিচার না পেয়ে অসহায় হয়ে বাড়িতে ফিরে আসে। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ১৯ ডিসেম্বর শনিবার দুপুর ১ টা ১৫ মিনিটে মো. হাসানের ছেলে মো. জমিল (২৫) দোকান থেকে বাড়িতে ফেরার পথে মিনার বাজার টেক পাড়া এলাকার জাফর এর ছেলে মো. হাশেম (২০) মো. ইউনুছের ছেলে আবদুল্লাহ (২৮) মৃত সিরাজ মিয়ার ছেলে ইউনুছ (৫০) মৃত হাশিমের ছেলে ফেরদৌস (২৫) এর নেতৃত্বে ৪/৮ জন সন্ত্রাসী তুলে নিয়ে স্থানীয় যুব ঐক্য পরিষদ ক্লাবের ভিতরে বন্দী করে নগদ ৯০ হাজার টাকা ও ৩ টি বিকাশের মোবাইল কেড়ে নিয়ে ফেলে এবং দা, কিরিচ, অস্ত্র নিয়ে এলোপাতাড়ি ব্যাপক কিল, ঘুষি ও দা, কিরিচ দিয়ে মারাত্নত আহত করে। শৌর চিৎকার দিলে জমিলকে উদ্ধার করতে মা ছমিরা গেলে তাকেও লাথি মেরে ব্যাপক মার ধর করে মাটিতে পেলে রাখে। ঘটনার খবর পেয়ে হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ খবর পেয়ে যুব ঐক্য পরিষদ ক্লাবের ভিতর থেকে আহত ছেলে ও মা ছমিরাকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।
এ ব্যাপারে আহত জমিলের মা বাদী হয়ে টেকনাফ মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •