বার্তা পরিবেশক :

হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা একটি স্বাধীন দেশ পেতাম না। তিনিই ঘোষণা করেছিলেন স্বাধানীতার। বঙ্গবন্ধুর ঘোষণার পরও পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিল বাঙ্গালী জাতি। যার সুবাদে আমরা আজকের দিনটিকে (১৬ই ডিসেম্বর) বিজয় দিবস হিসাবে উদযাপন করতে পারছি। এই দিবালোকের মত বাস্তব ইতিহাসকে বিকৃত করে স্বাধীনতা ইতিহাসকে ভিন্নভাবে নিয়ে যাওয়ার ষড়যন্ত্র এখনো অব্যাহত রয়েছে। তাই নতুন প্রজন্মের কাছে সঠিক ইতিহাস তুলে ধারাই আমাদের দায়িত্ব। ওই চক্রটি শুধু স্বাধীনতার ইতিহাসকে বিকৃত করছে না। বর্তমানে দেশের উন্নয়নে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির পায়তারা চালাচ্ছে। তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের বিরুদ্ধে বহুমুখী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। জাতি ওই চক্রকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। তাদের হাতে দেশ ও জাতি নিরাপদ নয়। তার যুদ্ধাপরাধীদের হাতে তুলে দিয়েছিল সেই রক্তস্নাত পতাকা। তিনি ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় আশেক উল্লাহ রফিক এমপি এ কথা বলেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার পাশা চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডঃ আবু তালেব’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা ডাঃ নুরুল আমিন, সহসভাপতি এম আজিজুর রহমান, পৌর মেয়র মকছুদ মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ফরিদুল আলম, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শরীফ বাদশা, মাস্টার লিয়াকত আলী, দপ্তর সম্পাদক নির্মল চক্রবর্তী, জেলা পরিষদ সদস্য মশরফা জান্নাত, মুক্তিযোদ্ধা ছালেহ আহমেদ, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সাজেদুল করিম, মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিনা আকতার, শ্রমিক লীগের সভাপতি আবদু শুক্কুর, এনামুল করিম, নেওয়াজ কামাল ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হালিমুর রশিদ। পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক কুতুব উদ্দিন ইলাহী। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মোহাম্মদ ফোরকান বিএ, নুরুল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের য্গ্মু সাধারণ সম্পাদক ব্রজ গোপাল ঘোষ, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক নাছির উদ্দিন, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল আলম, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক প্রণব কুমার দে,্ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক এডঃ শেখ কামাল, সেলিম উল্লাহ সেলিম, উপদপ্তর সম্পাদক এম আবদুল মান্নান, উপপ্রচার সম্পাদক এহছানুল করিম, সাবেক চেয়ারম্যান আবদু সামাদ, শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সরওয়ার আলম, উপজেলা মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি জাবের আহমেদ, সাবেক ছাত্রনেতা ওয়াজেদ আলী মুরাদ, পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি রিপন উদ্দিন, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি হাসান মোরশেদ, বেলাল উদ্দিন, হেফায়ত উল্লাহ, মোঃ শাহজাহান, জাহাঙ্গীর আলম, নুর মোহাম্মদ বাদশা ও সাহেল মোঃ আশেক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •