cbn  

এম.এ আজিজ রাসেল :
গভীর শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় জেলাজুড়ে উদযাপিত হচ্ছে মহান বিজয় দিবস। ভোরে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের সূচনা হয়। সকাল ৬টায় কক্সবাজার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বেদিতে শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি বিন¤্র শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসন, পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামানের নেতৃত্বে জেলা পুলিশ, পুলিশ সুপার মো. জিল্লুর রহমানের নেতৃত্বে ট্যুরিস্ট পুলিশ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে জেলা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. নজিবুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল করের নেতৃত্বে পৌর আওয়ামী লীগ, জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুরের নেতৃত্বে জেলা যুবলীগ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কানিজ ফাতেমা মোস্তাক ও সাধারণ সম্পাদক সদর উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হামিদা তাহেরের নেতৃত্বে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনানের নেতৃত্বে জেলা ছাত্রলীগ, কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন, জেলা সিভিল সার্জন, ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা সদর হাসপাতাল, পানি উন্নয়ন বোর্ড, সড়ক ও জনপথ বিভাগ, কক্সবাজার বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগ, জেলা আইনজীবী সমিতি, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) কক্সবাজার শাখা, কক্সবাজার সাংবাদিক সংসদ, জেলা মানবাধিকার কমিশন, রাখাইন একতা সংঘ, জেলা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ, জয় বাংলা ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন। এছাড়া দিনব্যাপী আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, দোয়া মাহফিল, রক্তদান কর্মসূচী, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন হচ্ছে। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে মসজিদ, মন্দির, গীর্জসহ বৌদ্ধ বিহারগুলোতে বিশেষ প্রার্থনা করা হয়েছে। সরকারি শিশু পরিবার, জেলাখানা ও এতিমখানায় উন্নতমানের খাবারের আয়োজন করা হয়। এছাড়া বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ও বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙ্গার প্রতিবাদে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ও ব্র্যান্ডিং কক্সবাজারের সহযোগিতায় কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে নির্মিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সর্ববৃহৎ বালুর ভাস্কর্যে্যর উন্মোচন করা হয়েছে। সেখানে সকাল থেকে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে সৈকতের লাবণী পয়েন্টে আসতে শুরু করে। ভীড়ের মিছিলে ছিল পর্যটকরাও। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপলক্ষে দৃষ্টিনন্দনভাবে সাজানো হয় অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণ। সাগরের বিশাল জলরাশির বুক ভেদ করে একদল তরুণ লাল সবুজের পতাকা নিয়ে জেডস্কীর মাধ্যমে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা করে। এসময় হাজার হাজার মানুষ বিজয়ের উচ্ছ্বাসে মেতে উঠে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •