আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
দুই বছর পর ফের ইসরায়েলে রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দিচ্ছে তুরস্ক। ২০১৮ সালে গাজা উপত্যকায় ফিলিস্তিনিদের ওপর হত্যাকাণ্ড চালানো এবং জেরুজালেম শহরে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তর করার প্রতিবাদে তুরস্কের রাষ্ট্রদূতকে ফিরিয়ে নিয়েছিল।

মনে করা হচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি করতে এমন পদক্ষেপ নিচ্ছে তুরস্ক। কারণ আগামী মাসেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নিবেন জো বাইডেন। তিনি তুরস্কের ব্যাপারে ট্রাম্পের চেয়ে কঠোর হতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আল জাজিরা জানিয়েছে, ৪০ বছর বয়সী উফুক উলুতাসকে এই পদে নিয়োগ দিচ্ছে এরদোয়ান প্রশাসন। তিনি এর আগে তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সেন্টার ফর স্ট্রাটেজিক রিসার্চের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

জেরুজালেম শহরের হিব্রু বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন উফুক। খবরে বলা হয়েছে, উলুতাস কোনো পেশাদার কূটনীতিক নন তবে খুবই মার্জিত, চতুর এবং ফিলিস্তিনপন্থী।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্কে টানাপড়েন দেখা দিয়েছে। এ পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়ন ঘটাতে আঙ্কারা ইসরায়েলে নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগের পরিকল্পনা নিয়েছে।

টাইমস অব ইসরাইল জানিয়েছে, তুরস্ক রাষ্ট্রদূত নিয়োগ করলেও ইজরাইল তুরস্কে নতুন রাষ্ট্রদূত পাঠাবে কিনা তা পরিষ্কার নয়।

২০১৬ সালে ইসরায়েলের সঙ্গে তুরস্ক সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তি করলেও দু’দেশের সম্পর্ক অনেকটা টালমাটাল অবস্থার মধ্য দিয়ে পার হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •