প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

১৪ ডিসেম্বর মহান বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্বরণে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কক্সবাজার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আবু মোঃ মারুফ আদনানের নেতৃত্বে রাত ১২ ঃ ০১ মিনিট কক্সবাজার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে আলোক প্রজ্জ্বলন ও নির্ধারিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে সূর্যোদয় ক্ষণে জেলা কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন এবং জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনির্মিতকরণ করা হয়। কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে সকাল ৯ : ০০ টা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে
পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

পরবর্তীতে মহান মুক্তিযুদ্ধের পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বর্বরতম নৃশংস হত্যাকান্ডের শিকার জানা-অজানা অগণিত শহীদের প্রাণহীন দেহ মিশে থাকা কক্সবাজার পশ্চিম বাহারছড়াস্থ বধ্যভূমিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

এ সময় জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আবু মোঃ মারুফ আদনান বলেন ১৯৭১ সালে শহিদ বুদ্ধিজীবীদের বেছে বেছে হত্যার ঘটনা বিশেষ তাৎপর্য বহন করে। তারা শহীদ হন এক সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা অংশ হিসেবে। হানাদার পাকিস্তানি বাহীনি তাদের পরাজয় আসন্ন জেনে বাঙালি
জাতিকে মেধাশূন্য করার লক্ষ্যে বুদ্ধিজীবীদের নিধনের এই পরিকল্পনা করে। এ সময় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ বুদ্ধিজীবীদের গনহত্যার সাথে যারা জড়িত তাদের দ্রæত বিচারের মাধ্যমে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিও জানান।

এ সময় জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি বোরহান উদ্দীন খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী নাজমুল হক সহ সাবেক জেলা ছাত্রলীগ ও বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •