নিজস্ব প্রতিবেদক :

কক্সবাজার কমার্স কলেজে দুর্ধষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। কলেজ বন্ধ থাকার সুযোগে চোরের দল হানা দিয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য সরকার কর্তৃক দেয়া মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টর সেট, দোয়েল ল্যাপটপসহ কিছু গুরুত্বপূর্ণ মালামাল নিয়ে গেছে। ১২ ডিসেম্বর রাতে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।

কক্সবাজার কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ফজলুল করিম জানান, শহরতলির খুরুস্কুল কুলিয়াপাড়ায় অবস্থিত কক্সবাজার কমার্স কলেজের কাজ সেরে ১২ ডিসেম্বর দুপুরে বাসায় চলে আসার পর পরের দিন ১৩ ডিসেম্বর সকাল ৯টার দিকে কলেজের নৈশ প্রহরী আবদু সালাম আমার অফিসের দরজার তালা ও আলমিরা ভাঙ্গা দেখতে পেয়ে আমাকে জানায়। আমি তাৎক্ষনাত এসে দেখি আমার কক্ষের আলমিরা ভেঙ্গে লেপটপ, মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টর সেট বিভিন্ন মামলামাল চুরি হওয়ার বিষয়টি অবগত হই। চুরি যাওয়া মামলামালের আনুমানিক মূল্য ২ লাখ টাকা হবে বলে তিনি জানান। এ চুরির ব্যাপারে কক্সবাজার মডেল থানায় লিখিতভাবে জানানোর পর কক্সবাজার মডেল থানার এসআই মোঃ দস্তগীর হোসাইন দুপুরে চুরি হওয়া কক্সবাজার কমার্স কলেজের অধ্যক্ষের কক্ষ পরির্দশন করেন।

পুলিশ পরির্দশক মোঃ দস্তগীর হোসাইন জানান, কলেজের অধ্যক্ষ চুরির ঘটনা লিখিতভাবে জানানোর পর ওসি স্যারের নির্দেশে আমি ঘটনাস্থল পরির্দশন করি এবং আলমিরা ভাঙ্গা দেখতে পায় এবং চুরির বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছি। বিষয়টি আমি গুরুত্বের সাথে দেখছি। যেহেতু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিষয় আশাকরি দ্রুত চোর সনাক্ত করতে আপ্রাণ চেষ্টা করব।

করোনা ভাইরাসের মহামারিতে যেহেতু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রায় বন্ধ রয়েছে। এ সুযোগে চুরি, ছিনতাই স্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। করোনাকালিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিরাপত্তা জোরদার জরুরি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •