এ কে এম ইকবাল ফারুক, চকরিয়া
চকরিয়ায় ৮ বছর বয়সী শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা ও ভাই-বোনকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা মামলার প্রধান আসামী মিজানুর রহমানকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চকরিয়া থানার একদল পুলিশ বুধবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে অভিযান চালিয়ে মিজানুর রহমানের নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃত মিজান উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের উত্তর মেধাকচ্ছপিয়া গ্রামের আবদুল হাকিমের ছেলে। বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে গ্রেপ্তারকৃত মিজানকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

 

জানা গেছে, গত ২৮ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে খুটাখালী ইউনিয়নের মেধাকচ্ছপিয়া এলাকায় বাড়ির পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে দুই ভাই-বোন মিলে ফুল ঝাড়ু (বাটারি) কাটতে যায়। জঙ্গলে তাদের একা পেয়ে স্থানীয় বখাটে মিজান ৮ বছর বয়সী শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা চালায়। এ সময় তারা চিৎকার শুরু করলে মিজান তার হাতে থাকা ধারালো দা দিয়ে দুই ভাই-বোনকে এলাপাতাড়ি কুপিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত ভেবে পালিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় ছোট ভাই রিয়াজ উদ্দিন (৭) রাস্তার পাশে দৌঁড়ে আসলে পথচারী লোকজন ঘটনা দেখে তাদের উদ্ধার করে মালুমঘাট মেমোরিয়াল খ্রীষ্টান হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় দুই শিশুর পিতা আবদুস ছবি বাদী হয়ে মিজানুর রহমানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

 

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ৮ বছর বয়সী শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টাসহ ও দুই ভাই-বোনকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় দায়ের করা মামলার প্রধান আসামী মিজানকে পুলিশ অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করে। বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্রেপ্তারকৃত মিজানকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। মামলার অপর আসামীদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •