আবদুল মজিদ,চকরিয়া:

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নে পাহাড় কেটে অবাধে মাটি বিক্রি করছে স্থানীয় একটি ভুমিদস্যু সিন্ডিকেট। বিএম চর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড পুচ্ছালিয়া পাড়া ও আশপাশ এলাকায় ভুমিদস্যু খ্যাত মৃত আবদুল হাকিমের পূত্র গিয়াস উদ্দিন প্রকাশ খোকন ও মৃত ছৈয়দুল রহমানের পুত্র মাষ্টার শামশুল ইসলামের নেতৃত্বে পাহাড় কেটে মাটি বিক্রি করে চলছে। তারা প্রশাসনের নিরব ভূমিকার কারণে দিনদিন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।

সরেজমিনে গিয়ে জানাযায়, প্রতিদিন রাত ৮ টা থেকে ভোর ৬ টা পযর্ন্ত সময়ে দুটি ডাম্পার গাড়ী দিয়ে প্রতি রাতে ১৫ থেকে ২০ট্রাক মাটি অন্যত্র নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানান, মোঃ আবদুল কুদ্দুসের পুত্র মোঃ মণির ও মোহাম্মদ আলমগীরের দুইটি ডাম্পার এসব মাটি বিক্রির কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে। স্থানীয় সচেতন মহল বলেন, চেয়ারম্যান ও মাতামুহুরী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জকে অবগত করেই এসব পাহাড় কাটা হচ্ছে। এ বিষয় প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্থানীয় জনসাধারণ।

এ বিষয়ে স্থানীয় বিএমচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম জাহাঙ্গীর আলমের কাছে মুটোফোনে জানতে চাইলে, তিনি জানান, পাহাড় কেটে মাটি বিক্রি করতে তিনি কাউকে অনুমতি দেননি।

মাতামুহুরী তদন্ত কেন্দ্রের আইসি বলেন, পাহাড় কাটার বিষয়ে আমাদেরকে কেউ জানায়নি, যোগাযোগও করেনি। যদি কেউ পাহাড় কেটে মাটি বিক্রির কাজে জড়িত থাকে, তাদের আইনের আওতায় আনতে কাজ ব্যবস্থা নেবেন।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ শামসুল তাবরীজ জানান, বিএমচরের পুচ্ছালিয়া পাড়ার দুইটি পয়েন্টে পাহাড় কর্তন ও মাটি বিক্রির বিষয়ে স্থানীয়দের মাধ্যমে অবহিত হয়েছেন। খুব শীঘ্রই ওই স্থানে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানান। প্রয়োজনে তিনি পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের মাধ্যমে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হবে বলেও ঘোষণা দেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •