আরটিভি : কুমিল্লার হোমনায় ছয় যুবকের বিরুদ্ধে এক স্কুল শিক্ষিকাকে গণধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। ওই শিক্ষিকা স্থানীয় এক কিন্ডার গার্ডেনে শিক্ষকতা করেন। তবে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে তারা তরুণীর ওপর গরম দুধ ঢেলে দিয়ে তার চেহেরা ঝলসে দেয়।
গেলো রোববার উপজেলার একটি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। গতকাল সোমবার রাতে থানায় অভিযোগ করেন ওই শিক্ষিকা।
জানা গেছে, গেলো রোববার এক শিক্ষিকাকে ঘরে একা পেয়ে ছয় যুবক তাকে গণধর্ষণের চেষ্টা করে। এতে ব্যর্থ হয়ে চুলা থেকে তার ওপর গরম দুধ ঢেলে দিয়ে তার চেহেরা ঝলসে দেয়। এতে তিনি আহত হলে তাকে হোমনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
এ ঘটনা শিক্ষিকা বাদী হয়ে সোমবার রাতে একই গ্রামের মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে বেদন মিয়া (৫০), বাসার মিয়ার ছেলে ইমন মিয়া (২০), রাকিব ও শিমন মিয়া (১৯), রব মিয়ার ছেলে নূরনবীর (২০) নাম উল্লেখ করে হোমনা থানায় অভিযোগ দাখিল করেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
ভুক্তভোগী শিক্ষিকা বলেন, গেলো রোববার আমি রান্নাঘরে পাক করতে ছিলাম। সকাল সাড়ে আটটার দিকে আমার প্রতিবেশী বেদন মিয়া ও ইমন মিয়া, শিমন মিয়া, আলমগীর নুরনবী ও রাকিব মিয়া ঘরে ঢুকে একা পেয়ে আমাকে পেছন থেকে ঝাপটে ধরে। তাদের সঙ্গে আমার ধস্তাধস্তি শুরু হয়। পরে তারা আমাকে মারধর করে আমার জামা-কাপড় ছিঁড়ে ফেলে শ্লীলতাহানি করে ও আমাকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। আমার চিৎকারে বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসলে চুলা থেকে গরম দুধের পাতিল আমার ওপর ছুঁড়ে মেরে পালিয়ে যায়। এতে আমার মুখ ঝলসে যায়।
হোমনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুর রসুল বলেন, শিক্ষিকার একটি অভিযোগ পেয়েছি।তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •