cbn  

নিজস্ব প্রতিবেদক:
সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মোঃ রাশেদ হত্যার ঘটনায় বরখাস্ত টেকনাফের সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাসসহ ২৬ পুলিশের বিরুদ্ধে সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফা খানের দায়েরকৃত মামলার প্রতিবেদন দিতে ৩০ দিন সময় চেয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।
সোমবার (৭ ডিসেম্বর) কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জেরিন সুলতানার আদালতে আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর কায়সার হামিদ।
গত ৮ সেপ্টেম্বর মামলাটি দায়ের করছিলেন
সাংবাদিক ফরিদ। যার নং সিআর ৬৬৬/২০২০ সদর।
এর আগে ২০১৯ সালের ২৪ জুন একটি সংবাদ করেন ফরিদুল মোস্তফা। যার শিরোনাম ছিল ‘টাকা না দিলে ক্রসফায়ার দেন টেকনাফের ওসি।’ এরপর ওসি প্রদীপ গং এর রোষানলেে পড়েন ফরিদুল মোস্তফা।
ফলে ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সালে টেকনাফ থানার ওসি থাকাকালে প্রদীপ কুমার দাশ সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফা খানকে রাতের অন্ধকারে ঢাকা মিরপুরের বাসা থেকে তুলে নিয়ে নির্মম নির্যাতন চালায়। অস্ত্র, মাদক চাঁদাবাজিসহ একেএকে ৬ সাজানো মামলায় চালান দেয়া হয়।
এসব মামলায় সাংবাদিক ফরিদুল টানা ১১ মাস ৫ দিন কারাভোগের পর গত ২৭ আগষ্ট জামিনে মুক্তি পান আলোচিত সাংবাদিক ফরিদ।
এরপর তিনি শারীরিক, মানসিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগে ২৬ পুলিশ সদস্য এবং ৪ জন মাদক ব্যাবসায়ীসহ মোট ৩০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেন।
মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দেন সদর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট তামান্না ফারাহ।
৭ ডিসেম্বর পরবর্তী ধার্য্য তারিখ এই মামলার প্রতিবেদন দাখিলের কথা থাকলেও আদালতে ৩০ দিন সময় চাওয়ার কারনে মামলার বাদীসহ কর্তব্যরত সাংবাদিকরা এই মামলার ন্যায় বিচার নিয়ে শংকা প্রকাশ করে সরকারের উপর মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
বাদীর প্রধান আইনজীবী মোঃ আবদুল মন্নান বলেন, যে কোন মামলা তদন্তে দীর্ঘ সূত্রিতা হলে ন্যায় বিচার বাধাগ্রস্ত হয়। আলামত নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
তিনি বলেন, তদন্ত কর্মকর্তা পরবর্তী ধার্য্য তারিখের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •