চকরিয়া সংবাদদাতা:
চকরিয়ায় প্রকাশ্যে দিবালোকে পৌরসভায় এক স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বাসায় দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে। এসময় দুর্ধর্ষ চোরেরা ওই বাসা থেকে নগদ অর্থ, স্বর্ণালংকারসহ প্রায় চার লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়। এনিয়ে ভুক্তভোগী রাতে চুরির বিষয়ে থানায় এজাহার দায়ের করেন।
রবিবার (৬ডিসেম্বর) বিকাল পৌনে ৫টার দিকে পৌরসভার ৪নম্বর ওয়ার্ডস্থ ভরামুহুরী কুদারকুম সংলগ্ন নাছির সওদাগর বিল্ডিংয়ের দ্বিতীয় তলায় ক্যামব্রিয়ান স্কুলের প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলামের বাসায় এ চুরির ঘটনাটি ঘটে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, পৌরসভার ৪নম্বর ওয়ার্ডস্থ ভরামুহুরী কুদারকুম সংলগ্ন নাছির সওদাগর বিল্ডিংয়ের দ্বিতীয় তলার ২০৩ নং বাসার দরজায় তালা লাগিয়ে শনিবার বিকেলে স্ব-পরিবার নিয়ে কক্সবাজার যান চকরিয়া ক্যামব্রিয়ান স্কুলের প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলাম। বাসা থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময় তার বাসার পার্শ্ববর্তী ভাড়াটিয়া দুই গৃহিনীকে বাসাটি দেখার জন্য প্রধান শিক্ষকের স্ত্রী পেকুয়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা রোকেয়া বেগম অবগত করেও যান বলে ভুক্তভোগী জানায়। রবিবার বিকাল পৌনে ৫টার দিকে কক্সবাজার থেকে ফিরে বাসায় গেলে দেখতে পাই তাহার বাসার দরজায় লাগানো তালাটি ভেঙে পড়ে আছে এবং দরজাটা খোলা রয়েছে।
রুমের ভেতরে ঢুকে দেখতে পান তাদের রুমের স্টীলের আলমিরা তালা ভাঙাবস্থায় ও আলমিরার ড্রয়ার ও স্বর্ণের বক্স খালি অবস্থা টেবিলের ওপরে পড়ে আছে। আলমিরাতে রক্ষিত থাকা নগদ পঞ্চাশ হাজার টাকা ও তিন ভরি আট আনা স্বর্ণালংকার দুর্ধর্ষ চোরেরা চুরি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় চকরিয়া ক্যামব্রিয়ান স্কুলের প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলাম বাদী হয়ে রবিবার রাতে অজ্ঞাতনামা দেখিয়ে থানায় এজাহার দায়ের করেন।
ঘটনার দিন রাত দশটার দিকে পৌরসভার ভরামুহুরী কুদারকুম সংলগ্ন নাছির সওদাগর বিল্ডিংয়ের দ্বিতীয় তলায় ক্যামব্রিয়ান স্কুলের প্রধান শিক্ষককের বাসা চুরির খবর পেয়ে চকরিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সায়েম সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, চকরিয়া ক্যামব্রিয়ান স্কুলের প্রধান শিক্ষককের বাসা চুরির বিষয়ে থানায় এজাহার দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি শুনার পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। বাসা চুরির বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।