সংবাদদাতা:
দেশি-বিদেশি উদ্ভাবক ও স্টার্টআপদের অনুসন্ধানে ৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়েছে মুজিব বর্ষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের iDEA প্রকল্পের বৃহৎ আয়োজন “বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট ২০২০ (বিগ)” এর চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্যাম্পেইন।
সীমিত পরিসরে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে অনুষ্ঠিত হওয়া এই অ্যাক্টিভেশন ক্যাম্পেইনে অংশ নেয় চট্টগ্রামের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা উদ্ভাবক, টেক-বেইজড স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী, চট্টগ্রাম স্টার্টআপ কমিউনিটির সদস্যগণ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেনসচিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক কৌশল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডঃ আরিফ ইফতেখার, সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রেজাউল করিম, চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) এর কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. আসাদুজ্জামান, চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (যুগ্মসচিব) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান এবং iDEA প্রকল্পের পরিচালক ও বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মজিবুল হক।
অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন জনাব আ. স. ম. জামশেদ খোন্দকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি), চট্টগ্রাম।

প্রধান অতিথি হিসেবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন উদ্ভাবকদের নিয়ে এ ধরনের আয়োজনের জন্য আইসিটি বিভাগের iDEA প্রকল্পসহ “বিগ ২০২০” এর সাথে সংশ্লিষ্ট সকল পার্টনারদের ধন্যবাদ জানান।

তিনি বলেন, যে বাংলাদেশ সরকার সব রকমের সুযোগ-সুবিধা দিয়ে উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে এবং তরুণদের সেই সুযোগগুলো যথাযথভাবে গ্রহণ করতে হবে। তরুণরা যদি এসকল সুযোগ-সুবিধা সঠিক সময়ে গ্রহণ না করে নিজেদেরকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে না পারে তবে আমাদের দেশকে উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছানো এক প্রকার চ্যালেঞ্জ হয়ে দাড়াবে। “বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট” তরুণ, উদ্ভাবক ও স্টার্টআপের জন্য একটি বিশাল সুযোগ। তাই, তিনি সকলকে এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আহ্বান জানান।

 

iDEA প্রকল্পের পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মজিবুল হক বলেন, iDEA প্রকল্পের কার্যক্রমকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যথাযথভাবে ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে স্টার্টআপ কমিউনিটি গঠন করা হয়েছে। দেশে স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম গঠনে ভূমিকা রাখতে স্টার্টআপ কমিউনিটিগুলোতে সংযুক্ত হচ্ছেন অনেক মেধাবী তরুণ ও উদ্ভাবক। ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে এই মেধাবী তরুণরাই রাখবে অন্যতম ভূমিকা। তিনি তরুণ প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর জীবনী ও আদর্শ সম্পর্কে গভীরভাবে জানতে আহ্বান জানান। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে সঠিকভাবে ধারণ করতে পারলে হৃদয়ে দেশপ্রেম ও দেশাত্ববোধ জাগ্রত হবে যা ‍সু-নাগরিক হিসেবে দেশের উন্নয়নে কাজ করতে তরুণসহ সকলকে অনুপ্রাণিত করবে বলেই মনে করছেন iDEA প্রকল্পের পরিচালক সৈয়দ মজিবুল হক।

 

অনুষ্ঠানের শুরুতে “বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট ২০২০ (বিগ)” এবং iDEA প্রকল্প সম্পর্কিত প্রেজেন্টেশন দেন প্রকল্পের সিনিয়র কনসালটেন্ট আর. এইচ. এম. আলাওল কবির। পরে অনুষ্ঠানে উপস্থিত তরুণরা “বিগ ২০২০” সম্পর্কিত প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নেয় এবং আইসিটি বিভাগের বিভিন্ন অর্জন নিয়ে তৈরি “এগিয়ে চলার ১১ বছর” ও “বিগ ২০২০” বিষয়ে ২টি অডিও ভিজ্যুয়াল প্রদর্শন করা হয়। এই ক্যাম্পেইনে যথাযথ সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, জেলা প্রশাসন ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। “বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট ২০২০ (বিগ)” এর বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে “বিগ ২০২০” সম্পর্কিত অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.big.gov.bd -এ। উক্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদনের শেষ তারিখ জাতীয় পর্যায়ে আগামী ২৫ ডিসেম্বর ২০২০ এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ২৫ জানুয়ারি ২০২১। উল্লেখ্য, “বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট ২০২০ (বিগ)” এর পুরস্কার হিসেবে সেরা একটি স্টার্টআপকে গ্র্যান্ট হিসেবে ১ লক্ষ ইউএস ডলার এবং সেরা ৩৫ টি স্টার্টআপকে ১০ লক্ষ টাকা করে “গ্র্র্যান্ট” প্রদান করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •