মোঃ কাউছার ঊদ্দীন শরীফ :

ঈদগাঁওতে নিরাপদ দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উদযাপিত হয়েছে। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘কেয়ার বাংলাদেশে’র বাস্তবায়নে এ উপলক্ষে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। বাজারের বৃহত্তর ঈদগাঁও পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে ১ ডিসেম্বর কয়েক ঘন্টা ব্যাপী এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডা (জিএসি) এর আর্থিক সহায়তায় এবং জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল এর কারিগরি সহযোগিতায় বাংলাদেশ সরকারের সাথে সংস্থাটি এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে। এবার এ সপ্তাহের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়- কমলা রঙ্গের বিশ্বে নারী বাধার পথ দেবেই পাড়ি। কেয়ার বাংলাদেশের কক্সবাজার জেলার যৌন, প্রজনন স্বাস্থ্য ও অধিকার এবং জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতায় প্রদানকৃত সেবাসমূহ জোরদারকরণ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় এ কর্মসূচিতে ছিল নারী-পুরুষের মাঝে লিঙ্গ ভিত্তিক সমতার বার্তাসমূহের জ্ঞান প্রতিযোগিতা এবং প্রেরণাদায়ক নারী নেতৃত্ব ও সফলতার কাহিনী উপস্থাপন। জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতার বিরুদ্ধে ১৬ দিনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ওসমান সরওয়ার ডিপো। ঈদগাহ জাহানারা ইসলাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিনের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন চৌফলদন্ডী ইউনিয়নের মেম্বার ও ইউনিয়ন নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সদস্য মোস্তফা কামাল, জালালাবাদ ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ও ইউনিয়ন নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সদস্য রেহেনা আক্তার এবং চৌফলদন্ডী ইউনিয়ন নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সদস্য নাসির উদ্দিন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেয়ার বাংলাদেশ কক্সবাজার জেলা অফিসের ইভ্যালুয়েশন এন্ড মনিটরিং অফিসার নুরুজ্জামান, সিনিয়র প্রজেক্ট অফিসার (জিবিভি প্রকল্প) সেলিনা পারভীন, কক্সবাজার সদর অফিসের ফিল্ড ট্রেইনার কাইছার ইসলাম, ইউএনএফপিএ প্রতিনিধি এবং কেয়ারের কর্মকর্তা বৃন্দ। অনুষ্ঠানে জ্ঞান প্রতিযোগিতায় বিজয়ী প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয়সহ সকলকে পুরস্কৃত করা হয়। এতে অংশগ্রহণকারী ছিলেন ৪০ জন। তাদের সকলকে মাস্ক ও সেনিটাইজার বিতরণ করা হয় কেয়ার এর পক্ষ থেকে। বক্তারা লিঙ্গ ভিত্তিক সহিংসতা কমাতে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান