মোঃ নিজাম উদ্দিন, চকরিয়া:
চকরিয়ায় মোবাইলকোর্ট অভিযানে ১৫-২০ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে ২০ একর বনভূমি উদ্ধার হয়েছে। কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের ফুলছড়ী রেঞ্জ আওতাধীন জুমনগর ও মেদাকচ্ছপিয়া এলাকায় এ অভিযান চলে। বন বিভাগের সহায়তায় অভিযান পরিচালনা করেন চকরিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ তানভীর হোসাইন।
মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৪ পর্যন্ত এ উচ্ছেদ অভিযান চলে। এসময় ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জ ও ফুলছড়ী রেঞ্জের ভারপ্রাপ্ত রেঞ্জ কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম, ফুলছড়ী বিট কর্মকর্তা আকরাম হোসেন, ডুলাহাজারা বিট কর্মকর্তা ইলিয়াস হোসাইনসহ উভয় রেঞ্জের সকল বিট কর্মকর্তা, ভিলেজার ও চকরিয়া থানার একদল পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।
ফুলছড়ি ভারপ্রাপ্ত রেঞ্জ কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম বলেন, মেদা-কচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্যান ও ফুলছড়ী বিটের জুমনগর এলাকায় বনভূমি দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করছিল ভূমি দস্যুরা। এ খবর পেয়ে চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় মোবাইলকোর্ট অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় ১৫-২০ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে প্রায় ২০ একর বনভূমি উদ্ধার করা হয়েছে। বনভূমি দখলকারী যতবড় শক্তিশালী হোক না কেন কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলেও তিনি জানান।
চকরিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ তানভীর হোসাইন বলেন, ফুলছড়ী রেঞ্জের জুমনগর ও মেদাকচ্ছপিয়া এলাকায় প্রায় ২০ একর পাহাড়ী বনভূমির গাছপালা এবং পাহাড় কেটে অবৈধভাবে ১৫-২০ টি স্থাপনা নির্মাণ করে৷ বনবিভাগের সহায়তায় মোবাইলকোর্ট অভিযানে এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে৷ সরকারি বনভূমি থেকে এ উচ্ছেদ অভিযান চলবে বলেও জানান তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •