আলীকদম প্রতিনিধি:

লামা বন বিভাগের তৈন রেঞ্জের একটি নিলামে কয়েক কোটি টাকা মূল্যের বনজসম্পদ মাত্র ৬২ লাখ টাকায় হাতিয়ে নিয়েছে প্রভাবশালী সিন্ডিকেট! নিকোজিশনের নামে এরা ২২ লাখ ৪৫ হাজার টাকা ভাগাভাগি করে দিয়েছে অন্যান্য অংশগ্রহণকারীদের। মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) তৈন রেঞ্জে এ ঘটনা ঘটে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, লামা বন বিভাগের আওতাধীন বিভিন্ন রেঞ্জ, স্টেশন, বিটে জব্দ হওয়া, ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত গাছপালা ও বিভাগীয় পর্যায়ে আহরিত কাঠ এবং সামাজিক বনায়নের আওতায় সৃজিত বøকউড বাগানের মার্কিং করা গাছগুলি নিলামের মাধ্যমে বিক্রয় করার জন্য গত জুন মাসে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, এ নিলামে অংশগ্রহণ করেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী, কুতুব উদ্দিন সওদাগর, লামার মোঃ সেলিমসহ একাধিক প্রভাবশালী ব্যক্তি। এরা নিলামে প্রভাব বিস্তার করেন। যার কারণে কয়েক কোটি টাকা মূল্যের বনজসম্পদ চলে যায় গুটিকয়েক প্রভাবশালীর দখলে। তবে বিভাগীয় বন কর্মকর্তা জানান, নিলামকালে কেউ প্রভাব বিস্তার করেনি।

নিলাম গ্রহীতাদের একজন মোঃ সেলিম জানান, তারা কয়েকজনে মিলে ৬২ লাখ টাকা বনজসম্পদগুলি নিলামে নিয়েছেন। তবে লামা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা জানান, এখনো পর্যন্ত কত লক্ষ টাকার নিলাম হয়েছে তা হিসাব করা হয়নি। বন বিভাগের অন্য একটি সূত্র জানায় সামাজিক বনায়নের মেয়াদোত্তীর্ণ বøকউড বাগানের গাছের নিলাম মূল্য প্রায় ৬০ হাজার টাকা।

তৈন রেঞ্জ কর্মকর্তা জানান, সামাজিক বনায়নের গাছ ও বিভাগীয় পর্যায়ে আহরিত, ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এবং জব্দকৃত কাঠগুলি তাঁর দপ্তরে নিলাম অনুষ্ঠিত হয়। তবে নিলাম সর্বমোট নিলাম মূল্যের বিষয়টি তাঁর জানা নেই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •