কফিল উদ্দিন রামু::

রামুর কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের উখিয়ারঘোনা নাপিতেরঘোনা এলাকায় রাত্রিকালীন গ্রাম পাহারা ও সার্বিক আইনশৃঙ্খলা শীর্ষক উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রামু থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ কে এম আজমিরুজ্জামান।

২০ নভেম্বর রাত সাড়ে ০৭ টার দিকে পশ্চিম গনিয়াকাটা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক ও এমইউপি হাবিবউল্লাহর সভাপতিত্বে অনু্ষ্ঠিত হয়।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকার জনগনের মাধ্যমে জানা যায়, রামুর কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের উখিয়ারঘোনা এলাকার টেইলা পাড়া,নাপিতেরঘোনা, হরিনখাইয়া,পশ্চিম গনিয়া কাঠা ডাকাত অধ্যুষিত এলাকা,বিশেষ করে শীতকালের আগমনের সাথে সাথে বেড়ে যায় ডাকাত দলের দৌরাত্ন,তারা অপহরন,নির্যাতন সহ বিভিন্ন লুটরাজ কর্মকান্ড করে থাকে রাতের আধারে। যার কারনে স্থানীয় জনগন নানান আশংকায় থাকত,সেই আশংকা থেকে প্ররিত্রানের জন্য স্থানীয় এমইউপি ও রামু থানা পুলিশের সহযোগিতায় তারা রাত্রিকালীন পাহারার ব্যবস্থা করে থাকে প্রতিবছর শীতকালীন সময়ে।

প্রধানতম অতিথির বক্তব্যে ওসি রামু কে এম আজমিরুজ্জামান বলেন, আমরা রামু থানা পুলিশ নতুনভাবে সাজানোঁ,আমরা চাই রামুর সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিও সব সময় আমাদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে,তারজন্য প্রয়োজন আপনাদের সহযোগিতা,আপনাদের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে রামু থানা পুলিশ আগেও সার্বিক সহযোগিতা দিয়ে পাশে ছিল,বর্তমানে থাকবে। এবং তিনি অপরাধীদের উদ্যোশ্যে কঠোর সতর্কবানী উল্লখ করেন।

সভাপতির বক্তব্যে স্থানীয় এমইউপি হাবিব উল্লাহ বলেন,আমরা প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও রাত্রিকালীন এলাকা পাহারার ব্যবস্থা করেছি,আমরা রামু থানা পুলিশকে এজন্যই ধন্যবাদ জানাই তারা সর্বাত্মক সহযোগিতা ও পরামর্শ দিয়ে আমাদের সাথে থাকেন। এবং এলাকার বর্তমান বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বিষয়নিয়ে মতবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি এলাকার সকল স্থরের মানুষের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন। এবং সবাইকে ইয়াবা এবং মদ জুয়া থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করেন।

এসময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন মোস্তাক আহমদ ম্যানেজার ,আলী আহমদ সও,সরওয়ার কামাল কাজল,আবু তাহের মেম্বার, মাহমুদ হোসেন সও, গুরা মিয়া সও, শাহ আলম, আল মামুন, মোহাম্মদ ফোরকান, আব্দুল্লাহ ড্রাইভার, আব্দুল মালেক, দানু মিয়াঁ প্রমুখ।

উল্লেখ্য সার্বিক আইনশৃঙ্খলা শীর্ষক উঠান বৈঠকে ০৮ নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ ফোরকান আহাম্মদের উল্লেখযোগ্য ভুমিকা লক্ষ্য করা যায়।

তাছাড়া উক্ত অনুষ্ঠানে রাত্রিকালীন পাহারার জন্য টর্চলাইট,মাস্ক ও স্যানিটাইজারসহ যাবতীয় জিনিসপত্র বিতরন করা হয়। এবং রাত্রিকালীন পাহারার জন্য সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন ওসি রামু।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •