এফ এম সুমন পেকুয়া:

আগে পুর্নবাসন পরে উচ্ছেদ, পুর্নবাসন ছাড়া উচ্ছেদ নয় এসব দাবী নিয়ে মানবন্ধন করেছে পেকুয়া আলহাজ্ব কবির আহম্মদ চৌধুরীর বাজার হকার ব্যবসায়ীরা। (শনিবার ২১ নভেম্বর) সকালে পেকুয়া বাজারের প্রধান সড়কে দাড়িয়ে কয়েক শতাধিক হকার ব্যবসায়ী তাদের উচ্ছেদ পূর্বে পুর্নবাসনের জোর দাবী জানান। এসময় সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বক্তব্য রাখেন, পেকুয়া হকার্স সমিতির সভাপতি আব্দু রহিম বাদশা, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শফি, ইজারাদার সাজ্জাদ হোছাইনসহ আরো অনেকে।

এসময় বক্তরা হত দরিদ্র ৩শতাধিক হকারদের উচ্ছেদের আগে অন্যত্র পুর্নবাসনও অগ্রধিকার ভিত্তিতে সরকারীভাবে নির্মিত ভবনে দোকান বরাদ্ধ দেয়ার দাবী জানান। না হলে রাস্তায় কঠোর আন্দোলনে যাবার হুমকি দেন।

জানা যায়, পেকুয়া আলহাজ্ব কবির আহম্মদ চৌধুরীর বাজারের হকার ব্যবসায়ীরা দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে হকারে কাপড়চোপড়সহ নানাবিধ জিনিসপত্র বিক্রি করে আসছিলেন। সম্প্রতি সেখানে গ্রামীন বাজার অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় বহুতল ভবন নির্মানের কাজ শুরু করবে সরকার। ইতিমধেই উপজেলা প্রশাসন সেখানে অবস্থানরত হকারদের দখলে থাকা জায়গা খালি করার নির্দেশ সম্বলিত একটি সাইনবোর্ড দিয়েছে। তার পর থেকে হকার ব্যবসায়ীরা পুর্নবাসনের দাবী তুলে আসছেন। তারা তাদের ক্ষতিপুরণসহ স্থায়ী পুর্নবাসনের দাবী জানান।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোতাচ্ছেম বিল্লাহ বলেন, গ্রামীন বাজার অবকাঠামো নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় সেখানে সরকারীভাবে ভবন নির্মাণ হবে। ইতিমধ্যেই ঠিকাদার নিয়োগ হয়েছে কাজ শুরু হবে। এটা সরকারী জায়গা এই ভবনও পেকুয়ার মানুষের জন্য। পুর্নবাসনের বিষয়ে তিনি বলেন, আমার হাতে যদি সুযোগ থাকে অবশ্যই সেটি করবো।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •