নিজস্ব প্রতিবেদক:
সদস্য প্রয়াত কুতুবদিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য ১৯৯১ সনের প্রয়লংকরী ঘূর্ণিঝড়ে মা, বাবা, ভাই, ভাতিজা, ভাইপোসহ ১৭ জন সদস্য হারানো, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্রয়ে লালন-পালন হওয়া মোজাম্মেল হক কুতুবীর জেয়াফত সম্পন্ন হয়েছে।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) তার গ্রামের বাড়ি কুতুবদিয়ার কৈয়াবিলে এই জেয়াফত অনুষ্ঠিত হয়। এই উপলক্ষ্যে বিশাল মেজবানের আয়োজন করেন তাঁর স্বজনেরা।

মরহুম মোজাম্মেল হক কুতুবীর জেয়াফত অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ, ‍ যুবলীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ অংশ নেন।

মোজাম্মেল হক কুতুবীর গত ৮ নভেম্বর ঢাকার একটি হাসপাতালে বেলা ১১টা ৪৫ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। মত্যুকালে তিনি স্ত্রী-দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

উল্লেখ্য, মরহুম মোজাম্মেল হক কুতুবী রামু উপজেলার প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা  রশিদ আহমেদ বিএ এর  জামাতা।

মরহুম মোজাম্মেল হক কুতুবীর করব জেয়ারত করলেন খোরশেদ কুতুবী
মরহুম মোজাম্মেল হক কুতুবীর করব জেয়ারত করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক এবং কুতুবদিয়া উপজেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি খোরশেদ আলম কুতুবী, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য খোরশেদ আলম কুতুবী। তিনি বুধবার মরহুম মোজাম্মেল হক কুতুবীর জেয়াফতে অংশ নেন এবং তার কবর জেয়ারত করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •