সোয়েব সাঈদ, রামু:
রামু উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়িতে বিদ্যুৎ শক ও গুলি করে বন্য হাতি হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে।
পানেরছড়া রেঞ্জ কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান জানিয়েছেন, বুধবার (১৭ নভেম্বর) বন বিভাগ বাদী হয়ে রামু থানায় অস্ত্র ও বন্যপ্রাণী আইনে মামলাটি দায়ের করেন। তিনি আরো জানান-মামলায় ২ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।
এরা হলেন-দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের খরইল্যাছড়ি এলাকার শাইর মোহাম্মদের ছেলে নুরুল হক ও ফরিদুল আলমের ছেলে সুলতান।
উল্লেখ্য, রবিবার (১৫ নভেমম্বর) সকাল দশটায় রামু উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের খরইল্যাছড়ি এলাকায় ধানি জমিতে স্থানীয়রা মৃত হাতিটি দেখতে পায়। পরে বন বিভাগের কর্মকর্তা ও ভেটেরিনারী সার্জন হাতিটির ময়না তদন্ত সম্পন্ন করেন। ময়নাতদন্তে হাতিটিকে বিদ্যুতের শক দিয়ে হত্যার বিষয়টি উল্লেখ করা হয়।
বনবিভাগের পানেরছড়া রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান আরো জানান-এ ঘটনায় বন বিভাগের বিভাগীয় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। তিনি আরো জানান, যেখানে মৃত হাতিটি পড়ে ছিলো সেটি জোত জমি। এর পাশেই বন। ঘটনাস্থলের প্রায় ২০০ মিটার দূরে বাড়িঘর রয়েছে। এসব বাড়িঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ আছে। হাতিটিকে বৈদ্যুতিক শক দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে বন বিভাগ আইনগত পদক্ষেপ নিয়েছে।
রামু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আজমিরুজ্জামান জানিয়েছেন-এ ঘটনায় বন বিভাগ বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ জড়িতদের আটকের চেষ্টা চালাচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •