cbn  

বাংলানিউজ: করোনা ও নির্বাচনের অজুহাতে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের পারস্পরিক আলাপ-আলোচনা মিয়ানমার পিছিয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তবে ফের আলোচনা শুরুর আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি।

শনিবার (১৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনে ‘বঙ্গবন্ধুর পররাষ্ট্রনীতি ও বর্তমান বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ড. মোমেন বলেন, মিয়ানমার দীর্ঘদিন এই অবস্থায় আছে। কিন্তু আমরা যুদ্ধের কথা চিন্তা করিনি। আলোচনার দ্বারা সমস্যার সমাধান না হয়ে উপায় নেই। সম্প্রতি তারা করোনা ও তাদের নির্বাচনের অজুহাতে আলোচনা পিছিয়েছে। তবে আমরা তাদের কথায় বিশ্বাস করি। আমরা জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম খানের সঞ্চালনায় উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ও স্বাগত বক্তব্য দেন। এর আগে উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর স্ত্রী সেলিনা মোমেন, সহ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এম এ বারী, শিক্ষক সমিতির কর্মকর্তা, কার্যনির্বাহী সদস্য, বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বিকেল তিনটার দিকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ক্যাম্পাসে পৌঁছান। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও মোনাজাত করেন। গণঅভ্যুত্থানে শহীদ ড. শামসুজ্জোহার সমাধি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের বধ্যভূমি স্মৃতিফলকেও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার, শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা, বিশ্ববিদ্যালয় আর্কাইভস, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা হল, নবনির্মিত শেখ রাসেল মডেল স্কুল পরিদর্শন করেন তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •