প্রেস বিজ্ঞপ্তি
কক্সবাজার ইসলামী সাহিত্য ও গবেষণা পরিষদের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, রামু লেখক ফোরামের সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর বলেছেন, নৈতিক অবক্ষয় থেকে তরুণ সমাজকে বাঁচিয়ে বইমুখী করে জ্ঞানভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণে আদর্শ পাঠাগার বৈপ্লবিক ভুমিকা রাখতে পারে। এমন উপলদ্ধি থেকে দীর্ঘসময় ধরে আমি পাঠাগার আন্দোলনের সাথে যুক্ত। এ আন্দোলনকে বেগবান করার লক্ষ্যে আদর্শিক চিন্তার ছাত্র-তরুণদের সুসংগঠিত করতে এখনো গ্রাম থেকে গ্রামান্তরে ছুটে বেড়াই।
তিনি ১১ নভেম্বর (বুধবার) বিকেলে রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের ধোয়াপালং এ নবপ্রতিষ্ঠিত “আলোর দিগন্ত পাঠাগার” পরিদর্শনকালে একথা বলেন। এসময় তিনি পাঠাগারের বই বিন্যাস, পাঠকদের বসা ও পড়ার সুব্যবস্থাসহ সার্বিক ব্যবস্পনা সম্পর্কে কিছু জরুরি নির্দেশনা দেন।সেই সাথে রামু চৌমুহনী আল-হাছান স্টেশনারীজের সত্ত্বাধিকারী, তরুণ আলিম মাওলানা মুহাম্মদ হাসানের সৌজন্যে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে বেশ ক’টি বই পাঠাগার কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেন এবং তাঁর স্বরচিত কাব্যগ্রন্থ “বিশ্বাসের পঙক্তিমালা” ও ওলামায়েকেরামের জীবনীমূলক স্মারক “রাহবার” এর সৌজন্য কপিও পাঠাগারের জন্য প্রদান করেন। এসময় তাঁর সাথে ছিলেন, রামু লেখক ফোরামের সহযোগী সদস্য মাওলানা আব্দুল্লাহ হোসাইনী। পাঠাগারের দায়িত্বশীল-সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা আব্দুল গফুর, মুহাম্মদ আজিজুর রহমান, হাফেজ হোসাইন আহমদ, মাওলানা আব্দুল করিম, মুহাম্মদ আজিজুল হক, মুবিনুল হক প্রমুখ।

উল্লেখ্য, শেল্টার ফাউন্ডেশনের সভাপতি মাহমুদুল হকসহ আদর্শিকধারার তরুণ, যুবক, শিক্ষানুরাগীদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ঘরে ঘরে জ্ঞান-প্রজ্ঞার আলো ছড়িয়ে দেয়ার ব্রত নিয়ে প্রতিষ্ঠিত পাঠাগারটি ৩০ অক্টোবর, জুমাবার, বাদ জুমা আনুষ্ঠানিকভাবে শুভ উদ্বোধন করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •