আবদুল মজিদ , চকরিয়া :

চকরিয়ায় এক অসহায় পরিবারের বসতভীটার জমি জবর দখলে নিতে রাতের আধারে পরিবারের সদস্যদের আটকে রশি দিয়ে গাছে সাথে বেধে বসতবাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের রিংভং হাছিনাপাড়া গ্রামে ১২নভেম্বর দিবাগত রাত ১টার দিকে ঘটেছে এ ঘটনা। এঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের গৃহকত্রী মনুর আলমের স্ত্রী কাউছার বেগম বাদী হয়ে প্রশাসনিক দপ্তরে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এতে অভিযুক্ত করা হয়েছে; ঘটনায় সম্পৃক্ত একই এলাকার মৃত ছাবের আহমদের পুত্র মো: মিজান,মৃত মনিরুজ্জামানের পুত্র গিয়াস উদ্দিন ও রমজান আলী, মিজানের স্ত্রী বিউটি বেগম ও গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী পারভিন আক্তারকে।

অভিযোগে ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, এলাকার অন্যান্য প্রতিবেশিদের ন্যায় দীর্ঘকাল ধরে বনভূমির রিজার্ভ জায়গাতে গৃহ নির্মাণ করে বসবাস করে আসছেন। কিন্তু অভিযুক্তরা সিন্ডিকেট করে বাদী পক্ষকে নানাভাবে জুলুম নির্যাতন ও হুমকি ধমকি দিয়ে বসতবাড়ি উচ্ছেদ করে জবর দখলে নেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় ঘটনারদিন ১২নভেম্বর দিবাগত রাত ১টার দিকে অভিযুক্তরা ধারালো অস্ত্র নিয়ে বাদী পক্ষের সদস্যদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে রাতের আধারে রসি দিয়ে গাছের সাথে বেধে রেখে বাড়িতে কেরোসিন ঢেলে বসতঘর পুড়িয়ে দেয়। এসময় ২২হাত লম্বা ও ১৪ হাত প্রস্থ বিশিষ্ট বাড়ি পুড়ে যায়। এছাড়া বাড়ির ভেতরে রক্ষিত নগদ ৩৫ হাজার টাকা, দেড় ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার ও বসতঘরে পুড়ে সর্বমোট ২লাখ ৭৫ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। পরে চিৎকার শুনে স্থানীয় প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে। ভূক্তভোগি পরিবার বিষয়টি থানা পুলিশ, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারসহ গন্যমান্য ব্যক্তিদের অবগত করেছেন। তারা বর্তমানেও চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন বলে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে জানান। তারা প্রশাসনের কাছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে আইনী সহায়তা চেয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •