সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলায় স্বরচিত কবিতা প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান ( সেরা) অধিকার করেছে মেধাবী শিক্ষার্থী উম্মে ফাদিয়া হোসেন সিকদার। পেকুয়া উপজেলা অনলাইন পরিবার নামে একটি বেসরকারি সংগঠন স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের সংস্কৃতিক মনন ও মেধার বিকাশে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) দুপুরে আনুষ্টানিকভাবে উম্মে ফাদিয়ার হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেন সংবর্ধনা সভার প্রধান অতিথি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম। পেকুয়া সরকারি মডেল প্রাইমারি স্কুলের মুক্তিযুদ্ধ কর্ণারে অনুষ্টিত হয় এই প্রতিযোগিতার পুরুস্কার বিতরনী সভা।

পেকুয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ছালামত উল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এম কফিল উদ্দিন বাহাদুর, পেকুয়া সরকারি মডেল জিএমসি ইন্সটিটিউশনের সহকারী প্রধান শিক্ষক নুর হোসেন, পেকুয়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হানিফ চৌধুরী, নুর আয়েশা খান ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এম ইসমাঈল খান, পেকুয়া উপজেলা প্রবাসী ঐক্য পরিষদ সভাপতি শাহ আলম, পেকুয়া বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক এলএম আসহাব উদ্দিন, রাজাখালী এয়ার আলী খান আদর্শ উচ্চবিদ্যালযয়ের সহকারী শিক্ষক রহিম উদ্দিন প্রমুখ। অনুষ্টানে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ নানা শ্রেণিপেশার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্টানে প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জনকারী শিক্ষার্থী যথাক্রমে বোরহান আল হাসান ও তাজবিদুল হককেও সম্মানা ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেন অতিথিরা।

মেধাবী শিক্ষার্থী উম্মে ফাদিয়া হোসেন সিকদার এবার উপজেলার ঐতিহ্যবাহি রাজাখালী এয়ার আলী খান আদর্শ উচ্চবিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করেছে। লেখাপড়ার পাশাপাশি তিনি ছবি আঁকাতে খুবই পারদর্শি। ছবি এঁকে ইতিমধ্যে একাধিক পুরস্কারও ঘরে তুলেছেন রাজাখালীর জমিদার পরিবারে জন্ম নেওয়া এই মেধাবী।তার বাবা মোহাম্মদ নূর হোসেন সিকদার অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক, মা মোস্তফা পারুল গৃহিণী।

অনুষ্টানে স্বীকৃতি সনদ ও ক্রেস্ট হাতে পেয়ে খুশীতে আত্মহারা উম্মে ফাদিয়া। অনুভুতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলে ফেলেন উম্মে ফাদিয়া-ছড়াকবিতা আর ছবি আঁকাআঁকির শুরুটা রপ্ত হয়েছিল কীভাবে? অবশ্যই এ সাফল্যের পেছনে মায়ের অবদানটা একটু বেশি ছিল। অনুষ্টানে দর্শকদের উদ্দেশ্যে উম্মে ফাদিয়া স্বরচিত দুটো কবিতাও আবৃত্তি করেন। আবৃত্তিতেও সমান দখল তার।

কোবিড-১৯ এর প্রভাবে পুরো পৃথিবী যখন স্থবির হয়ে পড়েছিল-তখন শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় মারাত্বক বিপত্তি দেখা দেয়। পেকুয়া উপজেলার ঝিমিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের সংস্কৃতিক মনন ও মেধার বিকাশে একটি অনলাইন স্কুল প্রতিষ্টার উদ্যোগ নেন পেকুয়া বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক এলএম আসহাব উদ্দিন ও রাজাখালী এয়ার আলী খান আদর্শ উচ্চবিদ্যালযয়ের সহকারী শিক্ষক রহিম উদ্দিন। স্কুলের নামকরণ হয়- পেকুয়া অনলাইন স্কুল।

অনলাইন স্কুলের ক্লাসগুলো সম্প্রসারিত করতে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে পেকুয়া উপজেলা অনলাইন পরিবার নামে একটি পাবলিক গ্রুপ খোলা হয়।

গ্রুপের এডমিন উপদেষ্টা হলেন এলএম আসহাব উদ্দিন হৃদয় ও রহিম উদ্দিন রাজ। পাবলিক গ্রুপের ইউনিক উদ্যোগেই এই স্বরচিত কবিতা প্রতিযোগিতার আয়োজন। মূলত করোনাকালীন সময়ে শিক্ষার্থীদের মনকে সতেজ রাখতে এই আয়োজন। হাজারো গ্রুপ মেম্বারদের ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করা হয় প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান।

এই প্রতিযোগিতা তিন ধাপে অনুষ্ঠিত হয়। সর্বশেষ গ্রান্ড ফিনালে প্রথম স্থান অধিকার করে উম্মে ফাদিয়া হোসেন সিকদার, দ্বিতীয় বোরহান আল হাসান এবং তৃতীয় তাজবিদুল হক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •