শাহেদ মিজান, সিবিএন:

এদেশর এতিহ্যবাহী এবং আন্দোলন সংগ্রামের ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর হাতে এই সংগঠনে প্রতিনিয়ত চলে নেৃতত্বে প্রতিযোগিতা। এই প্রতিযোগিতায় উত্তীর্ণ হওয়া সাদ্দাম হোসেন এবং মারুফ আদনানের নেতৃত্বে সদ্য গঠিত হয়েছে কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগ।

কিন্তু অভিযোগ থাকে, দলের সুদিন থাকলেও উচ্চ নেতৃত্বের অবহেলার কারণে এই বৃহৎ ছাত্রসংগঠনে ত্যাগী ও তৃণমূলের নেতাকর্মীরা থেকে যায় বৈষ্যমের নিচে; পায়না যথাযথ মূল্যায়ন। কিন্তু আগামীর কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগকে এই অভিযোগ তকমা মুক্ত দেখতে চায় নিবেদিত নেতাকর্মীরা।

সদ্য গঠিত কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সনভাপতি এস.এম সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনানের কাছে এমন দাবি রেখেছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। তারা চাচ্ছেন  প্রকৃত ত্যাগী  ও পরিচ্ছন্ন কর্মীদের জেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটিসহ সব ইউনিট কমিটি মূল্যায়ন করা হোক। তাদের পদায়ন করে ছাত্রলীগ পরিচ্ছন্ন ও আরো গতিশীল করা হোক।

তৃণমূলের নেতাকর্মীদের এই দাবির জবাব দিয়েছেন সদ্য গঠিত জেলা কমিটি সভাপতি এস.এম সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনান।

অতীতের যা কিছু অবহেলা, অবমূল্যায়ন এবং সব জীর্ণতা মূছে নবগঠিত কমিটি জেলায় একটি আদর্শ ছাত্রলীগ উপহার দেবেন- এমনটি প্রত্যাশা তৃণমূল ও ত্যাগী নেতাকর্মীদের।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •