ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
করোনার দ্বিতীয় ধাপে কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন এলাকায় ৪০ হাজার প্রচারপত্র বিলি করবে দেশের অন্যতম বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা-কোস্ট ট্রাস্ট।

এছাড়া জনসচেতনতা বাড়াতে এলাকাভিত্তিক উঠান বৈঠক, মাইকিংও করবে তারা।

বুধবার (১১ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সাথে সমন্বয় সভায় এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

‘আচরণ বদলাই, সুস্থ থাকি অন্যকেও সুস্থ রাখি’ প্রতিপাদ্যে সভাটি করেছে কোস্ট ট্রাস্টের সিএফটিএম প্রকল্প।

করোনা প্রতিরোধে সচেতনতা কার্যক্রমের সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আলি এহেছান।

তিনি বলেন, সবার অান্তরিকতা ও ব্যাপক সচেতনতার কারণে করোনার প্রথম ধাপে আমরা অনেকটা সফল। প্রশাসনের পাশাপাশি স্থানীয় জনগোষ্ঠীর ভূমিকা ভালো ছিল।

করোনার সেকেন্ড পেজে অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণের কর্মসূচি নেয়া যায় কিনা, সে বিষয়ে কোস্ট ট্রাস্টসহ এনজিওসমূহের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন প্রধান অতিথি।

বিশেষ অতিথি ছিলেন- কক্সবাজার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারি পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ নুরুল আমিন।

কোস্ট ট্রাস্টের কর্মকান্ড সম্পর্কে বিস্তারিত উপস্থাপন করে বক্তব্য রাখেন কোস্ট ট্রাস্টের পরিচালক (এম,ই) আমিনুল হক।

তিনি বলেন, করোনাকালে প্রশাসন, সংগঠন, সংস্থা, ব্যক্তিসহ বিভিন্ন প্রকল্পে ৬৬ লাখ টাকা খরচ করেছে কোস্ট ট্রাস্ট। দাতা সংস্থার অনুদানের জন্য তারা অপেক্ষা করে না। দেশের যে কোন দুর্যোগ-দুঃসময়ে কাজই কোস্ট ট্রাস্টের অন্যতম লক্ষ্য।

সভায় উপস্থিত ছিলেন- কোস্ট ট্রাস্টের সহকারী পরিচালক ও কক্সবাজার অাঞ্চলিক টিম লিডার জাহাঙ্গীর আলম, অর্থ ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা আবু ওফা মোঃ ইব্রাহিম ও প্রোগ্রাম অফিসার মং এথেন।

সভায় মাল্টিমিডিয়া প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে করোনার সেকেন্ড ওয়েভ মোকাবেলায় গৃহীত পদক্ষেপ ও করণীয় সম্পর্কে তথ্য উপস্থাপন করেন ডিস্ট্রিক্ট টিম লিডার মোঃ আরিফ উল্লাহ।

শীতের মৌসুমে করোনা করুন আকার ধারণ করতে পারে। তাই সবাইকে ব্যাপক সচেতন হওয়ার আহবান জানানো হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •