শাহেদ মিজান, সিবিএন:

কক্সবাজার সদরের খুরুশ্কুল হিন্দু পাড়ায় শ্বশুর বাড়িতে রূপসী দে (২২) নামে এক গর্ভবতী গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। নিহতের পরিবারের দাবি তাকে স্বামী ও শ্বাশুড়িসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন মিলে হত্যা করেছেন।

সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে কক্সবাজার মডেল থানার থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করেছেন। নিহতের পিতার দাবি, দুপুরের দিকেই রূপসীকে হত্যা করা হয়। সন্ধ্যায় তারা মৃত্যুর বিষয়টি জানতে পারেন এবং পুলিশকে খবর দেন।

রূপসী দে’র পিতা কালি শঙ্কর দে জানান, একই এলাকার চন্দ্র দে’র পুত্র সাজিদ দে’র সাথে শঙ্কর দে’র মেয়ে রূপসী দে’র বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বাপের বাড়িতে টাকাসহ বিভিন্ন উপঢৌকন এনে দেয়ার জন্য রূপসী দে’কে চাপ দেয় শ্বশুর বাড়ির লোকজন। তা দিতে না পারায় বিয়ের পর থেকে রূপসী দে’কে স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন মারধরসহ নানাভাবে নির্যাতন করে আসছে।

রূপসী দে’র পিতা কালি শঙ্কর দে দাবি বলেন, আমরা জানতে পেরেছি স্বামী সাজিদ দে, শ্বাশুড়ি ও সাজিদের ভগ্নিপতিসহ অন্যরা মিলে রূপসী গলা টিপে হত্যা করে। পরে রশি দিয়ে তার লাশ ঝুলিয়ে রাখে।

খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে। রাত সাড়ে ১২টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত লাশ মর্গে রয়েছে।

এই ঘটনার বিষয়ে পুলিশের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে নিহত রূপসীর পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, ময়না তদন্ত সম্পন্ন করে হত্যা মামলার এজাহার দায়ের করতে বলেছে থানা পুলিশ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •