আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের কাছে হেরে গেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর শনিবার রাতে এ বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। যদিও এখনও মার্কিন প্রশাসন এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়নি। তবে সোমবারই জো বাইডেনকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়ার কথা রয়েছে।

সারাবিশ্ব জো বাইডেনকে পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে মেনে নিলেও নিজের পরাজয় এখনও স্বীকার করে নেননি ট্রাম্প। বরং তিনি নির্বাচনে ভোট চুরির অভিযোগ এনেছেন।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজয় মেনে নিতে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নাকি অনুরোধ করেছেন তার স্ত্রী ও বর্তমান ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে একটি সূত্রের বরাত দিয়ে সিএনএন জানিয়েছে, মেলানিয়া প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে পরাজয় মেনে নিতে বলেছেন। এর আগেও বিভিন্ন বিষয়ে মেলানিয়াকে নিজের মত প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

তিনি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিষয়ে মতামত জানিয়েছেন। এমনকি অনেক সময় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরোধী মতামতও প্রকাশ করতে দেখা গেছে তাকে।

সিএনএন জানিয়েছে, শুধু মেলানিয়াই নয়। এর আগে নির্বাচনে পরাজয় স্বীকার করার বিষয়টি ট্রাম্পের কাছে তুলেছিলেন তার জামাতা জ্যারেড কুশনার। দুটি সূত্র সিএনএনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

তবে ট্রাম্পের দুই ছেলে তার পরাজয় মেনে নিতে রাজি নয়। তারা রিপাবলিকান এবং ট্রাম্প সমর্থকদের এই ফলাফল প্রত্যাখ্যানের আহ্বান জানিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন জয়ী হওয়ার পর এক দিন পার হয়ে গেলেও পরাজয় মেনে নেওয়ার কোনো ইঙ্গিত দেননি ট্রাম্প। বরং ঘোষণা দিয়েছেন যে, তিনি আদালতে যাবেন।

এর আগে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফিলাডেলফিয়াতে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্পের আইনজীবী রুডি জুলিয়ানি বলেছেন, নির্বাচনের ফলের বিরুদ্ধে তারা সোমবার (৯ নভেম্বর) থেকে আইনি চ্যালেঞ্জ শুরু করবেন।

নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, এবার ফিলাডেলফিয়াতে অনেক মৃত ব্যক্তি ভোট দিয়েছেন। অভিনেতা উইল স্মিথের মৃত বাবার নামেও ভোট দেয়া হয়েছে। আমরা যে পরিমাণ ভোটে এগিয়েছিলাম তা দুর্নীতি ছাড়া অদৃশ্য হয়ে যেতে পারে না।

জুলিয়ানি বলেন, তার পাশে যারা দাঁড়ানো তাদের মধ্যে ৫০ থেকে ৬০ জন নির্বাচন পর্যবেক্ষক আছেন এবং তাদের নিয়মিতভাবে ডাকযোগে পাঠানো ভোটের কোনো অংশ পর্যবেক্ষণ করার অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল বিচারক বলেছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রচার টিমের সদস্যরা ফিলাডেলফিয়াতে এই মুহূর্তে ভোট গণনার কাজ পর্যবেক্ষণ করছেন। নির্বাচনের রাত থেকেই ট্রাম্প ভোট গণনার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করেছেন এবং বলেছেন, তিনিই নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •