শাহেদ মিজান, সিবিএন:

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যার মুল হোতা সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশের শীর্ষ সহযোগি কনস্টেবল রুবেল শর্মাকে দ্বিতীয় রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তিনি সিনহা হত্যা মামলায় গ্রেফতার হওয়া আসামী। দুই দফায় ১২ দিন রিমান্ডে কনস্টেবল রুবেল শর্মাকে ব্যাপক জিজ্ঞাবাদ করেছে তদন্তকারী সংস্থা র‌্যাব। দুই দফার রিমান্ডে তার কাছ থেকে সিনহা হত্যা মামলা সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে- এমনটি জানিয়েছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা র‌্যাব ১৫ এর সহকারী পুলিশ সুপার খায়রুল ইসলাম। তাই নতুন করে আর রিমান্ড আবেদন না বৃহস্পতিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

অভিযোগ রয়েছে, ওসি প্রদীপের সকল অপকর্মের প্রধান সহযোগি ছিলেন কনস্টেবল রুবেল শর্মা। আলোচিত মেজর অবসর প্রাপ্ত সিনহা হত্যায় গত ১৪ সেপ্টেম্বর তাকে গ্রেফতার দেখায় র‌্যাব। ৩০ সেপ্টেম্বর রুবেল শর্মাকে সাত দিনের রিমান্ডে নেয় র‌্যাব। পরে ২৮ অক্টোবর দ্বিতীয় দফায় আরো ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা র‌্যাব ১৫ এর সহকারী পুলিশ সুপার খায়রুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, দুই দফা রিমান্ডে কনস্টেবল রুবেল শর্মার কাছ থেকে সিনহা হত্যা মামলা সম্পর্কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। এইসব তথ্য মামলার তদন্ত কাজে বেশ অগ্রগতি হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। এরপর ৫ আগস্ট এ ঘটনাযয় ৯ জনের বিরুদ্ধে কক্সবাজার আদালতে মামলা করেন সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস। এ মামলায় এখন পর্যন্ত ১৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১২ জন আসামি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। সর্বশেষ আসামী হিসেবে সংযুক্ত হয় টেকনাফ থানার সাবেক কনস্টেবল রুবেল শর্মা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •