আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের ফলাফল কি হবে তা নিয়ে উৎকণ্ঠা এখনও কাটছে না। এর মধ্যেই বেশিরভাগ ইলেকটোরাল ভোটের ফলাফল হাতে চলে এসেছে। এতে দেখা যাচ্ছে এখন পর্যন্ত ডেমোক্র্যাট দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন পেয়েছেন ২৬৪টি ইলেকটোরাল ভোট। অপরদিকে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের হাতে আছে ২১৪টি ভোট।

এদিকে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার অভিযোগ ডেমোক্র্যাট দল ভোট চুরি করেছে। ট্রাম্পের প্রচারণা শিবির জানিয়েছে, তারা জর্জিয়ায় মামলা করেছেন। জর্জিয়াসহ তিন অঙ্গরাজ্যে মামলা করা হয়েছে।

এর আগে নির্বাচনের দিন রাতের বেলা জনগণের উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে ট্রাম্প হুমকি দিয়েছিলেন যে, নির্বাচনী ফলাফল নিয়ে লড়াই করতে সুপ্রিম কোর্টে যাবেন তিনি। একের পর এক রাজ্যে মামলা করা শুরু করে দিয়েছে তার প্রচারণা শিবির।

জর্জিয়ার কিছু এলাকায় ভোট গণনা স্থগিত করার আবেদন করেছেন তারা। জর্জিয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটল গ্রাউন্ড রাজ্য যেখানে কোন প্রার্থী জিততে পারেন সে বিষয়ে এখনও ধারণা করা যায়নি।

মামলায় অভিযোগ তোলা হয়েছে যে, রিপাবলিকান একজন পর্যবেক্ষক চ্যাথাম কাউন্টির ব্যালটের স্তুপে একজন ভোট গণনা কর্মীকে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে দেরিতে আসা ৫৩টি পোস্টাল ব্যালট যুক্ত করতে দেখেছেন। জর্জিয়ায় ভোটের দিন সন্ধ্যা ৭টার আগে পোস্টাল ভোট র্নিধারিত স্থানে পৌঁছানোর নিয়ম।

ফলে গুরুত্বপূর্ণ চতুর্থ অঙ্গরাজ্য হিসেবে জর্জিয়ায় আইনি পদক্ষেপ নিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। যেসব জায়গায় ব্যালটে ‘প্রতারণা’ হয়েছে, সেসব জায়গায় ভোট গণনা থামানো হবে বলে অঙ্গীকার করেছেন তিনি। তবে তার দাবির স্বপক্ষে কোনো প্রমাণ উপস্থাপন করতে পারেননি তিনি।

এদিকে, মিশিগানে ট্রাম্প শিবির ব্যালট গণনা বন্ধ করতে মামলা করেছে। ওই রাজ্যে সামান্য ব্যবধানে বাইডেন জয়ী হয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন।

পেনসিলভানিয়ায় ভোটের দিনের তিন দিন পরে আসা পোস্টাল ব্যালট গণনার সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অ্যাপিল করছে রিপাবলিকানরা। ওই রাজ্যে এখনো লক্ষ লক্ষ ভোট গণনা করা বাকি। এছাড়া উইসকনসিনে প্রেসিডেন্টের শিবির ‘মঙ্গলবার দেখতে পাওয়া অস্বাভাবিকতার ভিত্তিতে’ ভোট পুনর্গণনার আবেদন করেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •