জে.জাহেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :

অপহরণেরর পর দুর্বৃত্তদের অমানুষিক নির্যাতনের ঘটনায় মামলা করতে অনিহা প্রকাশ করে সাংবাদিক গোলাম সারওয়ার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানিয়েছিলেন নিরাপত্তার ও আর্থিক অস্বচ্ছলতার অভাবে তিনি তাকে অপহরণ ও অমানুষিক নির্যাতনের ঘটনার জন্য মামলা করতে চান না।

তবে এর কিছুক্ষণের মধ্যেই আজ বুধবার বেলা ৪টার দিকে সাংবাদিক নেতাদের অনুরোধে তিনি মামলা করতে নেতৃবৃন্দের সাথে সিএমপির কোতোয়ালী থানায় মামলা করতে যান।

সন্ধ্যা সাড়ে ৫টায় গোলাম সাওেয়ারের দেয়া এজাহার মামলা হিসেবে নতিভূক্ত করে পুলিশ।

তবে মামলায় গোলাম সারওয়ার কাউকে আসামী করতে রাজি হয়নি। অজ্ঞাতনামা ৬ জনকে আসামী দেখিয়ে মামলা করা হয়েছে বলে জানান কোতোয়ালী থানার ওসি মো. মহসীন।

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সিনিয়র সহ-সভাপতি রতনকান্তি দেবাশীষ জানান, গোলাম সারওয়ার প্রথমে ভয়ে কারো বিরুদ্ধে মামলা করতে রাজি না হলেও পরে সাংবাদিক নেতাদের অভয় দেয়ার কারণে মামলা করতে রাজি হন। আমরা সবাই সারওয়ারকে নিয়ে থানায় মামলা করতে এসেছি।

পুলিশ জানায় গোলাম সােরওয়ার মামলা আর্জিতে তাকে অপহরণের পর অজ্ঞাত দুবৃর্ত্তরা মোবাইলের ইমু নম্বরে তার স্ত্রী কাছে ৩০ হাজার টাকা মুক্তিপণ চেয়েছিল। ইমো নাম্বার, বিকাশ নাম্বার ও হুমকি দাতার কল রেকর্ড এক সূত্র ধরে তদন্ত কাজ চলছে বলে জানায় পুলিশ।

মামলা দায়েরের পরপরই পুলিশ বাদী সারওয়ারকে নিয়ে তাকে যে স্থান থেকে অপহরণ করা হয়েছিল সে স্থান কাজীর দেউড়ি ভিআইপি টাওয়ার ও আলমাস সিনেমা এলাকা পরিদর্শনে যান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •