জাহাঙ্গীর আলম কাজল, নাইক্ষ্যংছড়ি :
জেল হত্যা বাঙালি জাতির জন্য ইতিহাসের একটি কলঙ্কিত অধ্যায়। ১৯৭৫ সালে ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্ব-পরিবার হত্যার আড়াই মাস পর ৩ নভেম্বর ঘাতকেরা জেল খানায় বন্দী অবস্থায় জাতীয় ৪ জন নেতাকে নির্মমভাবে হত্যা করে।
মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) বিকালে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের অফিস কক্ষে উপজেলা আওয়ামীলীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে জেল হত্যা দিবস উপলেক্ষ আয়োজিত দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

সভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যন তসলিম ইকবাল চৌধুরী বলেন, জাতীয় ৪ নেতাকে হত্যার পর ষড়যন্ত্রকারী আজও থেমে নেই। দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে নানাভাবে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে ঘাতকেরা।
এসময় নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম এর পরিচালনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবদুর রহমানের এর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলাপরিষদ সদস্য ক্যনুওয়ান চাক, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো,ইমরান,যুগ্ন সা: সম্পাদক ডা: সিরাজুল হক, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক ফখরুল ইসলাম কালু,ধর্ম-বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা নূরুল ইসলাম,আওয়ামীলীগ নেতা মো,হোসন, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সভা নেত্রী জুহুরা বেগম, কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দীন মামুন শিমুল, শ্রমিকলীগ সাধারণ সম্পাদক পাইসু মার্মা, সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনছার উল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দু রহমান বাপ্পী, কলেজ ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি রায়হান,সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুমিনুল আলম মুমু, ছাত্রনেতা আবু ছালেহ নোমান, আবরারসহ সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকার্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •