প্রেস বিজ্ঞপ্তি
রামু লম্বরীপাড়া দারুল কুরআন নূরানী একাডেমীতে ফুলেল সংবর্ধনায় সিক্ত হলেন, দেশের বরেণ্য ইসলামী শিক্ষাবিদ, বিদগ্ধ লেখক ও গবেষক, মাসিক আত-তাওহীদ সম্পাদক, জামিয়া আরবিয়া জিরির মুহাদ্দিস, ড. মাওলানা আ. ফ. ম খালিদ হোসেন।
রবিবার (১ নভেম্বর) বিদগ্ধ এ আলিম ও ইসলামী ব্যক্তিত্বের রামুতে শুভাগমন উপলক্ষ্যে দারুল কুরআন নূরানী একাডেমী এ সংবর্ধনার আয়োজন করে। তিনি বেলা সাড়ে ১১ টায় একাডেমী ক্যানভাসে পৌঁছালে প্রতিষ্ঠানের পরিচালক, শিক্ষকমণ্ডলী ও শুভানুধ্যায়ীরা তাঁকে ফুলেল সংবর্ধনা জানান।
এসময় তিনি একাডেমীর প্রতিটি শ্রেণী কক্ষ পরিদর্শনপূর্বক শিক্ষাকার্যক্রম প্রত্যক্ষ করেন।
পরে ডঃ খালিদ ছাত্র-শিক্ষক, অভিভাবক ও শুভানুধ্যায়ীদের অংশগ্রহনে অনুষ্ঠিত তারবিয়াতি অনুষ্ঠানে প্রধান অতথির বক্তব্য রাখেন।
তিনি বলেন, অল্প সময়ের মধ্যে লম্বরীপাড়া দারুল কুরআন নূরানী একাডেমী লেখাপড়ার মান উন্নয়ন, শিক্ষার্থীদের চরিত্র গঠন এবং পুরো গ্রামে কুরআন-সুন্নাহর আলো ছড়িয়ে দেয়ার ফলশ্রুতিতে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের আরবী, বাংলা, ইংরেজীর সুন্দর হস্তলিপি দেখে এবং কচিকাঁচা শিক্ষার্থীদের কন্ঠে বিশুদ্ধ কুরআন তিলাওয়াত, হাদীস শরীফ, মাসায়েল ও বিষয়ভিত্তিক গঠনমূলক বক্তৃতা শুনে আমি মুগ্ধ ও প্রীত হয়েছি। কর্তৃপক্ষের ঐকান্তিক প্রয়াস ও দ্বীন অনুরাগীদের নিষ্ঠাপূর্ণ সহযোগিতা বজায় থাকলে অদূর ভবিষ্যতে এ নূরানী একাডেমী এতদঞ্চলের একটি উদাহরণযোগ্য দ্বীনি শিক্ষাকেন্দ্র হিসেবে রূপান্তর হবে ইনশাআল্লাহ।
একাডেমীর পরিচালক হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তবে ড. খালিদ হোসেন আরও বলেন, নৈতিক অবক্ষয়রোধে, নবপ্রজন্মকে ইসলামের বুনিয়াদী শিক্ষায় সুশিক্ষিত জনগোষ্ঠী হিসেবে গড়ে তুলতে নূরানী শিক্ষাধারার গুরুত্ব অনস্বীকার্য। এ যুগান্তকারী শিক্ষা ব্যবস্থার কারণে আজ ঘরে ঘরে কুরআন-সুন্নাহর আলো ছড়িয়ে পড়ছে। এ ধারাকে উত্তরোত্তর বিকশিত করতে প্রতিটি পাড়া মহল্লায় পবিত্র এ শিক্ষা বিপ্লব ছড়িয়ে দিতে হবে।

এলাকার প্রবীণ আলেম, লম্বরীপাড়া ওলামা ও ইমাম পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, রামু জামেয়াতুল উলুম মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক, কক্সবাজার ইসলামী সাহিত্য ও গবেষণা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা কাযী মোহাম্মদ এরশাদুল্লাহ, লম্বরীপাড়া খালেদ বিন ওয়ালিদ র. জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা নুরুল আমিন।
এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, রামু লেখক ফোরামের সহ-সভাপতি, নূরানী একাডেমী উন্নয়ন পরিষদের সদস্য সাংবাদিক মুহাম্মদ আবু বকর ছিদ্দিক, শামসুল আলম মিস্ত্রী, শিক্ষা পরিচালক মাওলানা মুহাম্মদ দিদারুল আলম, সাহিত্যকলি সম্পাদক এহছানুল হক, অভিভাবক মুজিবুর রহমান, সাইফুল ইসলাম, মুহাম্মদ হারুনুর রশিদ, মুহাম্মদ মোমেন, শিক্ষক, মাওলানা আব্দুল্লাহ হোসাইনী, মাওলানা আব্দুল মালেক, হাফেজ জয়নাল আবেদীন, মাওলানা হাফেজ রফিকুল ইসলাম, হাফেজ মিজানুর রহমান প্রমুখ।
প্রধান অতিথির পরিচালনায় বিশেষ মুনাজাতের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •