ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
কক্সবাজার শহরের অধিকাংশ খাবার প্রতিষ্ঠান দেখতে চকচকে, অভিজাত মনে হলেও ভেতরের পরিস্থিতিটা কিন্তু ভিন্ন। নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি করা হয় খাদ্য। মানা হয় না কোন স্বাস্থ্যবিধি। ইচ্ছেমতো নেয়া হয় খাবারের দাম।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) এর অভিযানে এমন চারটি প্রতিষ্ঠানের সন্ধান পেয়েছে জেলা প্রশাসন।

প্রতিষ্ঠানসমূহ হলো- কলাতলী হোটেল মোটেল জোনের কুটুম বাড়ি রেস্টুরেন্ট, কেএফসি, পিজ্জা হাট এবং শর্ম্মা কীং রেস্টুরেন্ট।

এই চারটি অভিজাত খাবার প্রতিষ্ঠানের মধ্য থেকে শর্ম্মা কীং রেস্টুরেন্ট ২০ হাজার এবং কুটুম বাড়িকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

স্যাতস্যাতে রান্নাঘর, রান্না ঘরে খোলা খাদ্য, খোলা ডাস্টবিন, একইফ্রিজে কাচা খাবার ও রান্না করা খাদ্য বিক্রির উদ্দেশ্যে সংরক্ষণের অভিযোগে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর বিভিন্ন ধারায় দুই প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট লাভলী ইয়াছমিন।

অপরদিকে, কেএফসি ও পিজ্জা হাট একই কোম্পানির সিস্টার প্রতিষ্ঠান হলেও একই পণ্যে বিক্রি মূল্যে ভিন্নতা থাকায় তাদের সতর্ক এবং প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ জেলা প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করতে নির্দেশ দেয়া হয়।

এ সময় জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক তরুণ বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

অভিযানে কক্সবাজার জেলা আনসার ব্যাটেলিয়নের কর্মকর্তা ও সদস্য বৃন্দ সহযোগিতা করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •