আলমগীর মানিক,রাঙামাটি :
ধর্ষণ, বাল্য বিয়ে, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে লাল দেখিয়ে পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে গাছের চারা বিতরণ করেছে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘ। শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকায় পরিচালিত সারাদেশের অন্যতম প্রশংসিত এই সংগঠনটির উদ্যোগে রাঙামাটির পলওয়েল পার্কে বৃহস্পতিবার সকালে এই কর্মসূচী পালন করা হয়। এসময় শিক্ষার্থীরা গাছের চারা হাতে নিয়ে মাদক ও ধর্ষণ বিরোধী শপথ করে পার্কে আসা দর্শনার্থী ও পথচারিদের মাথে গাছে চারা বিতরণ করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাঙামাটির ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোঃ ছুফি উল্লাহ।

লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রীয় সভাপতি কাওসার আলম সোহেলের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সভাপতি শাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, রিপোর্টাস ইউনিটির অর্থ সম্পাদক মোঃ কামাল হোসেন, রাঙামাটি সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর মানিক, সংগঠনের তিতাস শাখার সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন, লাকসাম শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ রায়হান, অর্থ সম্পাদক তাসফিন আহমেদ, দপ্তর সম্পাদক বাদশাহ পাটোয়ারী প্রমুখ।

উক্ত সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেছেন, মাদক, ধর্ষণ ও বাল্য বিবাহ সহ সকল অপকর্মকে না বলে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘ রাঙামাটিতে শিক্ষার্থী ও পথচারীদের মধ্যে গাছের চারা রোপন ও বিতরণ করেছে সেটি প্রশংসার দাবিদার। যারা এসব অপকর্মের সাথে জড়িত তাদেরকে আইনের আওতায় এনে বিচার করা হবে। আসুন আমরা ধর্ষণ ও মাদককে না বলি। যারা এসব অপকর্মের সাথে জড়িত তাদের ধরিয়ে দিন। করোনাকালিন সময়ে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘ ৬৪ জেলায় লাল কার্ড প্রদর্শন কর্র্মসূচি ও গাছের চারা বিতরণ কর্মসূচির সফলতা কামনা করছি।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রীয় সভাপতি কাওসার আলম সোহেল বলেন, আমরা প্রতি বছর টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে বিভিন্ন জেলায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে এক লাখ গাছের চারা বিতরণ করে থাকি। বর্তমান সময়ে স্কুল কলেজ বন্ধ থাকায় ৪৬টি জেলায় এ পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ ৮৩ হাজার ৪০০ গাছের চারা বিতরণ করেছি। গত ৭ জুলাই থেকে কার্যক্রমটি শুরু করা হয়। রাঙামাটি ছিলো ৪৬ তম জেলা। জেলার বিভিন্ন বিদ্যালয়ের মাঠ, গ্রাম ও রাস্তায় পথচারীদের মধ্যে এ চারা বিতরণ করা হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা সকল অন্যায়কে লাল কার্ড প্রদর্শণ করে গাছের চারা হাতে নিয়ে সবুজ বাংলা গড়ার শপথ নেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •