মোহাম্মদ হোসেন,হাটহাজারী :
বাংলাদেশ রেলওয়ে তার যাত্রী সেবা আধুনিকায়ণ ও সহজতর করার জন্য বহুমূখী পদেক্ষপ নিয়েছেন সরকার। নতুন সাজে নির্মানাধীণ হাটহাজারী রেলওয়ে স্টেশনটিতে  যাত্রী ছাইনী এবং যাত্রীদের বসার আসন না থাকায় দুর্ভোগে পড়েছেন বিভিন্ন গন্তব্য আসা যাওয়া করা যাত্রীরা। সন্ধ্যার দিকে পর্যাপ্ত লাইটিং না থাকায় অন্ধকারে যাত্রীদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হচ্ছে।

স্টেশনের এরিয়ার ভিতরে বিশাল এলাকাজুড়ে রয়েছে মানুষের চলাফেরা। রেলওয়ে স্টেশনের নিজস্ব জায়গায় অবৈধভাবে অবাধে গড়ে উঠেছে ব্যবসায়ী প্রতিষ্টান। সরকার যাত্রী সেবায় কোটি কোটি টাকা খরচ করে প্রতিটা স্টেশনে নির্মাণ করেন নতুন ভবন। আধুনিক এ ভবনটি এখনো চালু না হওয়ায় যাত্রীরা টিকেট কেটে ভবনের বাইরে এলোমেলো ভাবে বসে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করেন।

হাটহাজারী স্টেশনের দায়িত্বরত স্টেশন মাস্টার জয়নাল আবেদীন এর সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন,স্টেশনে এখনো যাত্রী ছাউনী নির্মাণ করা হয়নি। স্টেশনে পর্যাপ্ত লাইটিং ব্যবস্থা করা হয়নি । রেললাইনের উপরে গরুর বাজার এবং যাত্রীদের বসার জন্য কোনো রুমে কোনো চেয়ার বসানো হয়নি।

তিনি আরো বলেন,স্টেশনের নিয়োজিত কর্মকর্তা কর্মচারীদের রুমেও আসবাব পত্র নেই,যাত্রীদের বসার জন্য চেয়ার নেই, নানা সমস্যা গুলো নিয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিত ভাবে জানানো হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ্য করেন।

স্টেশনটির সংস্কার ও আধুনিকায়ন করে আরো ট্রেন দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন যাত্রীরা। তারা বলছেন, হাটহাজারী স্টেশনের মতো একটি জংশন স্টেশন নাজিরহাটগামী লাইনে আর নেই। এই স্টেশন থেকে হাটহাজারী ও রাউজান উপজেলার বাসিন্দাদের জন্য গুরুত্বপুর্ণ ।

রেলওয়ে স্টেশন ঘুরে দেখা যায় যাত্রীরা টিকেট নিয়ে বসার কোনো সুযোগ না থাকায় রেলওয়ে স্টেশনের বাইরে বসে রেলের জন্য অপেক্ষা করছেন যাত্রীরা। দ্রুত সমস্যা গুলো সমাধানের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্থক্ষেপ কামনা করেন যাত্রীরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •