মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও :

ঈদগাঁও বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সদস্য, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরীর জানাজা আজ সোমবার দুপুর ২ টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাজারের হাইস্কুল মাঠে তার জানাযা পূর্ব সমাবেশে দিকনর্দেশনামূলক বক্তব্যে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অবঃ) ফোরকান আহমদ বলেন, সকলকে মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হবে। কেউ এটাকে এড়িয়ে যেতে পারবেন না। তাই সকলকে পরকালীন মুক্তির জন্য সময় থাকতে ভালো কাজ করতে হবে। কারণ আমরা ভালো কাজ না করলে আল্লাহর কাছে আমাদের কঠিন জবাবদিহি করতে হবে। তিনি উপস্থিত মুসল্লিদের সকলকে মৃত্যুর জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেয়ার অনুরোধ জানান। জানাযায় ইমামতি করেন হাফেজ মাওলানা এমদাদ উল্লাহ। এতে আরো বক্তব্য দেন মরহুমের ছোট ভাই এডভোকেট আবু হেনা চৌধুরী, মরহুমের পুত্র, কক্সবাজার সদর হাসপাতালে অর্থোপেডিক্স বিভাগের সার্জন ডাঃ এস, এম, মোস্তফা সরওয়ার সাদেক। । এ সময় কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ২ সোহেল জাহান চৌধুরী, জেলা যুবলীগ নেতা হুমায়ুন কবির চৌধুরী হুমু, ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায় পরিচালনা পরিষদের অর্থ সম্পাদক নুরুল আমিন, মরহুমের কনিষ্ঠ পুত্র আসিফ নেওয়াজ চৌধুরী শিহাব, সাবেক মেম্বার সেলিম উল্লাহ সিরাজী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
জানাযায় ইসলামাবাদ চেয়ারম্যান নুর সিদ্দিক, এম, মমতাজুল ইসলাম, সলিম উল্লাহ জিহাদী, জেলা পরিষদের সদস্য মাহমুদুল করিম মাদু, লুৎফর রহমান আজদ লুতু, বজল আহমদ, আনোয়ারুল আজিম, মুজিবুর রহমান চৌধুরী, কামরুল হাসান বাবু, আব্দুল মোনাফ সওদাগর, আবু সাঈদ সবুজ, নুরুল আজিম, আলী আহমদ সওদাগর সিদ্দিক আহমদ সওদাগর, শফিউল আলম সহ স্থানীয় শিক্ষক সাংবাদিক ব্যবসায়ী রাজনীতিবিদ ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার হাজার হাজার লোকজন অংশ নেন।
পরে তাকে তার নিজ গ্রাম উত্তর মাইজ পাড়ার মাতবর মসজিদ সংলগ্ন কবরস্থানে দাফন করা হয়।
তিনি ওই গ্রামের মৃত ছৈয়দুল করিম চৌধুরীর বড় ছেলে।
তিনি ২৬ অক্টোবর রাত ১ টা ৩০ মিনিটের সময় ঢাকাস্থ সমরিতা হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফেরার পথে শেষ নিঃশাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি ২ ছেলে, ৩ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও শুভাাাক্ষাংকী রেখে যান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •