মোঃজয়নাল আবেদীন টুক্কু,নাইক্ষ্যংছড়ি :
রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়নের উত্তর থোয়াইংগা কাটা গ্রামে পাষন্ড স্বামীর দায়ের কোপে স্ত্রী গুরুতর আহত হয়েছে। রবিবার (২৫ অক্টোবর) দুপুর ১ টার দিকে নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
আহত হাজেরা খাতুন (৪৫) এর স্বামী উত্তর থোয়াইংগা কাটা গ্রামের মৃত আবদুল জব্বারের পুত্র নুর হোসেন (৫২)।
হাজেরা খাতুন জানান বিগত ৩০ বছর পুর্বে নুর হোসেনের সাথে বিয়ে হয় তার। এভাবে প্রায় সময় স্বামীর লাঠি পেটা সহ্য করে আসছি। এখন ৭ সন্তানের জননী। মেয়ে বিবাহ দিয়েছি। তার পর ও স্বামীর অত্যাচার থামছেনা।
আজ সামান্য বিষয় নিয়ে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে লাঠিপেটা করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে ক্ষান্ত হননি। পরে দা দিয়ে মাথায় আঘাত করলে জ্ঞান হারিয়ে পেলে। আশ পাশের লোকজন তাকে উদ্বার করে বাইশারী বাজারে প্রাথমিক চিকিৎসা দিলে কিছুটা সুস্থ হয়।
আহত হাজেরার ভাই তমিম গোলাল বোন কে উদ্ধার করে চিকিৎসা দিচ্ছেন। বিষয়টি স্থানীয় মেম্বার আবদুল জব্বার ও সমাজের সর্দারকে অবগত করার কথা জানান তিনি। এছাড়াও বিষয়টি তিনি শুনার পর মেম্বার নিজে ইউপি চেয়ারম্যান কে অবগত করেছেন।
স্বামী নুর হোসেন থেকে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার বিষয়টি স্বীকার নিজেও এতবড় ঘটনা ঘটে যাবে কল্পনা করেনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •