cbn  

গিয়াস উদ্দিন :

ঈদগাও বাজারে ক্রমশ: বেড়েই চলেছে চুরি। একটি সংঘবদ্ধ চোরের দল লোকচক্ষুকে ফাঁকি দিয়ে এ ঘটনা ঘটাচ্ছে বলে ব্যবসায়ীদের ধারণা। জানা যায়, গত ২ দিনের ব্যবধানে অর্থাৎ শনিবার দুপুরে বাজারস্থ মাতবর মার্কেট প্রাঙ্গনে রাখা একটি পালসার মোটর সাইকেল (নং- কক্সবাজার – ল ১১-০৯৬৮ ) চুরি হয়েছে। গাড়িটি চৌফলদন্ডী ইউনিয়নের খামারপাড়া গ্রামের হাজী ছৈয়দ আলমের পুত্র নুরুল আলমের। তিনি মাছ বাজারের পাশর্^বর্তী নুর স্টোরের স্বত্বাধিকারী। এ ব্যবসায়ীর সাথে কথা হলে তিনি জানান, দিন দুপুরে এভাবে চুরি কার্য সংঘটিত হওয়ায় তারা আতংকিত। পরদিন তরকারী বাজারে মালামাল কেনার সময় সওদাগর পাড়ার আমান উল্লাহ নামক এক মাছ ব্যবসায়ীর মোবাইল সেটটি পকেট থেকে চুরি হয়ে যায় বলে জানা গেছে। সূত্রে প্রকাশ, ঈদগাও বাজার প্রতিদিন জমজমাট একটি ব্যবসায়িক জনসমাগম কেন্দ্র। বিশেষ করে শনিবার ও মঙ্গলবার সাপ্তাহিক হাটের দিন। এ সময় বিভিন্ন স্টাইলের কৌশলী চোর সিন্ডিকেট সক্রিয় হয়ে অলি গলি ও মার্কেটে দীর্ঘদিন ধরে নানান চুরির ঘটনা ঘটিয়ে আসছে। এ ব্যাপারে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, যুবলীগ নেতা ও ব্যবসায়ী পরিচালনা কমিটির সদস্য হাসান তারেকের সাথে কথা হলে তিনি জানান, চোরের সিন্ডিকেটের দিকে কড়া নজরদারী রয়েছে। ধরতে পারলেই কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। জালালাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি সেলিম মুর্শেদ ফরাজী জানান, বাজারে পুলিশ বীট থাকাকালীন বাজারে ৮টি সিসি ক্যামেরা চালু ছিল। যা পুলিশ বীট-ই কন্ট্রোল করতো। কিন্তু পুলিশ বীট স্থানান্তরিত হওয়ার পর ক্যামেরাগুলো আর দেখা যায়নি। চুরি-ডাকাতি ও দূর্ঘটনার ব্যাপারে সিসি ক্যামেরা আবারো সক্রিয় রাখার জোর দাবী জানিয়েছেন ব্যবসায়ীমহল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •