সিবিএনঃ
পার্বত্য জেলা বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নের বাইশফাড়ি সীমান্তে বিজিবি’র সঙ্গে বন্ধুকযুদ্ধে মোঃ আদহাম (৩০) নামের রোহিঙ্গা ইয়াবা কারবারি নিহত হয়েছে।
এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি দেশীয় তৈরী একনলা বন্দুক, ২ রাউন্ড কার্তুজ ও ৪০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি।
বুধবার (২১ অক্টোবর) ভোরে সীমান্তের ৩৫নং পিলারের সন্নিকটে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে৷
নিহত ব্যক্তি তুমব্রু কোনাপাড়া রোহিঙ্গা শিবিরের আবুল হাশেমের ছেলে।
এ খবর নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার ৩৪ বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্ণেল আলী হায়দার আজাদ আহমদ।
তিনি জানান, সীমান্ত দিয়ে বিপুল পরিমাণ ইয়াবার চালান আসার খবরে কঠোর অবস্থান নেয় বিজিবি।
এসময় ১০/১২জনের একটি দল মিয়ানমার থেকে আসতে দেখে বিজিবি তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করলে ইয়াবা কারবারিরা টহল দলকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি বর্ষণ শুরু করে। জান-মাল রক্ষার্থে পাল্টা গুলি করে বিজিবির টহলদল।
তখন অজ্ঞাতনামা ইয়াবা ব্যবসায়ীরা পাহাড়ী জঙ্গলের মধ্য দিয়ে মিয়ানমারের ভিতরে পালিয়ে যায়। পরে টহল দল ঘটনাস্থল থেকে উক্ত রোহিঙ্গাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ইয়াবা ও দেশীয় তৈরী একনলা বন্দুক সহ উদ্ধার করে উখিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
উদ্ধারকৃত ইয়াবা মূল্য প্রায় ১কোটি ২০ লাখ টাকা।
এ ব্যাপারে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন লে. কর্ণেল আলী হায়দার আজাদ আহমদ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •