এ কে এম ইকবাল ফারুক,চকরিয়া :

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ছোট বোনের সাথে অভিমান করে শহীদুল ইসলাম (২০) নামে এক পলিটেকনিকে পড়ুয়া ছাত্র কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছেন। সোমাবার রাত রাত ৮টার দিকে বাড়ির সদস্যদের সামনে কীটনাশক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে শহীদুল ইসলাম। পরে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাত ১১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। নিহত শহীদুল ইসলাম উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের উত্তর ঘুনিয়া গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে। তিনি চকরিয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

নিহত শহীদুল ইসলামের পিতা আজিজুর রহমান বলেন, সোমবার বিকালে আমার ব্যবসা প্রতিষ্টানে (চায়ের দোকান) সময় দিয়ে বাড়িতে চলে যায় শহীদুল ইসলাম। সেখানে তার ছোট দুই বোনের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে বাড়িতে থাকা কীটনাশক পান করে সে সকলের সামনে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। ঘটনার পরপরই শহীদুল ইসলামকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে রেফার করা হয়। বুধবার রাত ১১টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় শহীদুল ইসলাম।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, পলিটেকনিক ছাত্র আত্মহত্যার ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ মর্গে নিহতের ময়নাতদন্ত শেষে তার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।