গত ১৯ অক্টোবর বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও কয়েকটি স্থানীয় পত্রিকায় ‘ইসলামপুরে জমি জবর দখল চেষ্টার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। যা ব্যক্তিগত বা পারিবারিক বিরোধের জের ধরে সাজানো অপপ্রচারের অংশবিশেষ।
আমি নাপিতখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক। আমার সম্মান ক্ষুণ্ন করার হীন উদ্দেশ্যে মৃত বশির আলমের স্ত্রী শাকেরা, ছেলে নুরুল আমিন, আবদুর রহমান (প্রকাশ মনিয়া), ভাতিজা সাইফুল ইসলাম প্রকাশ ভুট্টু এ ধরণের অপপ্রচার করেছে। প্রতিবাদ সভার নামে তাদের বানোয়াট ও কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যে আমার চরম মান ক্ষুণ্ন হয়েছে। মূলতঃ আমার ভোগ দখলীয় ৪২ বছরের বনজ বাগানে রাতের অন্ধকারে এলমোনিয়াম তারের বেড়া দিয়ে দখলের উদ্দেশ্যে সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দেয়। যা পুলিশ গিয়ে পরে সরিয়ে নিয়ে যায়।
উল্লেখ্য, নাশকতা, গাড়ি পোড়ানো মামলার আসামী নুরুল আমিন, নারী নির্যাতন মামলার আসামি আবদুর রহমান (প্রকাশ মনিয়া), প্রতারণা মামলার আসামি কাসেমসহ স্থানীয় কিছু সাংবাদিককে ব্যবহার করে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করিয়েছে। এসব মিথ্যা, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ এবং এ বিষয়ে কাউকে বিভ্রান্ত না হতে আহবান জানাচ্ছি।

প্রতিবাদকারী
মাস্টার রশিদ আলম
সাবেক প্রধান শিক্ষক
নাপিতখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়
নতুন অফিস, ইসলামপুর, কক্সবাজার।