রাসেদুল ইসলাম মাহমুদ:
কক্সবাজারে বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৬তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করেছে একঝাঁক শেখ রাসেল অনুসারী।

এ উপলক্ষে ব্যতিক্রমী আমেজে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

কর্মসূচির মধ্যে ছিল শেখ রাসেল এর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল, বেলুন উড্ডয়ন, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, সম্প্রসারিতভাবে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্ণার উদ্বোধন, দেয়ালিকা উন্মোচন, শিশুতোষ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ, জন্মদিনের কেক কাটা ও উন্নতমানের খাবার পরিবেশন।

রবিবার (১৮ অক্টোবর) সকাল ১০ টায় শহরের উত্তর রুমালিয়ারছড়াস্থ কক্সবাজার শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়।

প্রথম অধিবেশনে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার সদর উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুরাইয়া আক্তার সুইটি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা কৃষি বিপণন কর্মকর্তা মোঃ শাহজাহান আলী।

শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন শেষে শেখ রাসেল এর জন্মদিনের সফলতা কামনা করে বেলুন উড্ডয়ন করা হয়। অতঃপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও শেখ রাসেল সহ তার শহীদ পরিবারবর্গের আত্মার শান্তি কামনা করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে কেন্দ্রটি। বেলা ১১.৩০ মিনিটে কেন্দ্রে টেবিল টেনিস, লুডু, দাবা ও ক্যারাম প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

দ্বিতীয় অধিবেশন বিকাল ৪ টায় প্রধান অতিথি কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন কেন্দ্রে শিশুদের মাঝে উপস্থিত হন এবং বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্ণার এর শুভ উদ্বোধন করেন।

জেলা প্রশাসক শিশুদের তৈরিকৃত দেয়ালিকার ৯ম সংখ্যার মোড়ক উন্মোচন করেন।

অনুষ্টানে জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক মোঃ ফরিদুল আলম এর সভাপতিত্বে ও কেন্দ্রের উপপ্রকল্প পরিচালক জেসমিন আকতার এর সঞ্চালনায় কোরআন তেলাওয়াতের মধ্যেদিয়ে উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার সদর উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুরাইয়া আক্তার সুইটি ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান চৌধুরী।

এছাড়াও কেন্দ্রের কর্মকর্তা-কর্মচারিবৃন্দ এবং ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্টেড মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ এতে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানেবক্তারা শোকাবহ চিত্তে শেখ রাসেলের স্মরণে তার জীবনী আলোকপাত করেন ।

অনুষ্ঠানের শেষভাগে কেন্দ্রের শিশুদের পরিবেশিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দসহ উপস্থিত সকলেই বিমুগ্ধচিত্তে উপভোগ করেন।

এ সময় কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিবাসী শিশুদের মাঝে সাংস্কৃতিক সরঞ্জাম বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন। অতঃপর অতিথিবৃন্দ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

শিশুদের কন্ঠে ধ্বনিত হয়-“জন্মদিন, শুভ জন্মদিন; শেখ রাসেল এর আজ জন্মদিন,বাঙালীর মনে সদা রবে অমলিন”।

এসময় আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ নিবাসি শিশুদের নিয়ে শেখ রাসেলের ৫৬তম জন্মবার্ষিকীর ১৫ পাউন্ড ওজনের কেক কাটেন ও শিশুদের খাওয়ান। এছাড়াও দিবসটি উপলক্ষে নিবাসী মাঝে দিনব্যাপী বিশেষ উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •