সিবিএন ডেস্ক:
ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা একে অপরের বিরুদ্ধে বিষোদগার করে বিভিন্ন স্ট্যাটাস, মন্তব্য এবং সমালোচনা করে থাকেন। এতে করে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের ব্যক্তিগত ভাবমূর্তি বিনষ্ট হওয়ার পাশাপাশি সংগঠনের ভাবমূর্তিও জনগণের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

আজ রোববার (১৮ অক্টোবর) ১২নং সরাইপাড়া ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আওতাধীন “এ”, ”বি” ও “সি” ইউনিট কমিটির পৃথক পৃথক কার্যকরী সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

আ জ ম নাছির বলেন, ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চোখ রাখলেই দেখা যায়, আমাদের নেতাকর্মীরা একে অপরের বিরুদ্ধে সমালোচনার তীর ছোঁড়াছুঁড়ি করেই ব্যস্ত সময় পার করছেন। তাদের প্রতিটি স্ট্যাটাসে বিএনপি, জামায়াত বা অপকর্মকারীদের কোন কুকর্মের সমালোচনা নেই। তারা পারস্পরিক দ্বন্দ্ব, বিরোধের বিষয়টিকে প্রচার প্রসার করে শুধু নিজেদের ক্ষতি করছেন তা নয়। এতে করে দলের ভাবমূর্তিও জনগণের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ছে। এসব স্ট্যাটাস পড়ে সাধারণ জনগণের মনে কেবল একজন ব্যক্তি নেতাকর্মীর চরিত্র অংকিত হচ্ছে তা নয়, এর মধ্য দিয়ে তাদের কাছে আওয়ামী সংগঠন নিয়েও প্রশ্নের সৃষ্টি হচ্ছে।

নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নিজেদের ব্যক্তি কলহ বা দ্বন্দ্বের বহিঃপ্রকাশ করতে গিয়ে দলকে প্রশ্নবিদ্ধ করে তুলবেন না। নিজেদের ব্যক্তি স্বার্থ হাসিল করতে দলের ভাবমূর্তিকে ব্যবহার করবেন না। ফেসবুকে বিএনপি-জামায়াতের অপকর্ম, দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্র চক্রান্তকে তুলে ধরুন। তাদের কুটকৌশল জনগণের সামনে উপস্থাপন করুন। স্ট্যাটাসে সরকারের সফলতার গল্প লিখুন। উন্নয়ন অগ্রগতির কথা দ্ব্যর্থহীন ভাষায় প্রকাশ করুন। এতে করে জনগণের কাছে আপনার আমার সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হবে।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ‍উপস্থিত ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম রেজাউর করিম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মসিউর রহমান চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মোহাম্মদ হোসেন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আবু তাহের, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক দিদারুল আলম, কার্য নির্বাহি সদস্য বেলাল আহমেদ, সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, অধ্যাপক মো. আসলাম, সরাইপাড়া ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক নুরুল আমিন, যুগ্ম আহবায়ক শওকত আলী, সাবের আহমদ সওদাগর, লুৎফুল হক খুশি, সাবেক কাউন্সিলর মোরশেদ আকতার চৌধুরী, ইউনিট নেতা আবু সৈয়দ, জাহাঙ্গীর আলম, রুবেল আহমেদ বাবুসহ সংশ্লিষ্ট নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। -সিভয়েস।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •