বলরাম দাশ অনুপম :
তথ্য মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি বলেছেন-মানবতার কল্যাণে কাজ করাই ধর্ম। তিনি বলেন-বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক চেতনার দেশ। এই দেশে ধর্ম যার যার উৎসব সবার এই শ্লোগান নিয়ে প্রতিটি ধর্মের মানুষ স্ব স্ব অবস্থানে থেকে উৎসবমূখর পরিবেশে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান নির্বিঘ্নে পালন করে আসছেন। এই সম্প্রীতির ধারা সমুন্নত রাখতে বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন বলে তিনি জানান।

এমপি কমল রবিবার সকালে শহরের গোলদিঘীর পাড়স্থ জেলা সৎসঙ্গ মন্দির প্রাঙ্গনে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের পক্ষ থেকে জেলার বিভিন্ন মন্দির উন্নয়ন-সংষ্কার ও দু:স্থ-অসহায়দের মাঝে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট্রের ট্রাস্টি বাবুল শর্মার সভাপতিত্বে ও জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের কর্মকর্তা সাংবাদিক বলরাম দাশ অনুপমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে-জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সহ-সভাপতি রতন দাশ, উদয় শংকর পাল মিঠু, বিপুল সেন, জেলা সৎসঙ্গ মন্দির পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কাউন্সিলর রাজ বিহারী দাশ, মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের সহকারী প্রকল্প পরিচালক বিশ্বজিৎ ব্যানার্জি, জেলা পূজা কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক দীপক শর্মা দীপু। উপস্থিত ছিলেন-জেলা সৎসঙ্গ মন্দির পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডাঃ চন্দন কান্তি দাশ, রামু উপজেলা পূজা কমিটির আহবায়ক তপন মল্লিক, চকরিয়া উপজেলা সভাপতি তপন দাশ, মহেশখালী উপজেলা সভাপতি মাষ্টার ব্রজ গোপাল ঘোষ, জেলা সৎসঙ্গ মন্দিরের প্রধান পুরোহিত বিশ্বনাথ বন্দোপ্যাথায়, পৌর পূজা কমিটির দপ্তর সম্পাদক শুভ দাশ প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র গীতা পাঠ করেন প্রিয়তোষ কান্তি দে। অনুষ্ঠানে জেলা, উপজেলা পূজা কমিটির বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ, মন্দির ভিত্তিক স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ, বিভিন্ন মঠ-মন্দিরের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •