অলি উল্লাহ রনি, চকরিয়া:
চকরিয়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গার্মেন্টসের এক কর্মীকে পৌরশহর চিরিঙ্গার রওশন মার্কেটের আবাসিক হোটেল ডি-ফোরে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ভিকটিমের বয়স ১৮ বছর।
তার বাড়ি বদরখালী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডে।
অভিযুক্ত মো. কায়ছার (৩০) কোনাখালী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে।
এ ঘটনায় মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) ভিকটিমের মা বাদী হয়ে ৯ (১)২০০০ ধারামতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে চকরিয়া থানায় একটি অভিযোগ জমা দিয়েছেন। অভিযোগটি চকরিয়া থানা প্রশাসন আমলে নিয়ে মামলা হিসেবে রুজু করেন। যার নং- ২৪/৪২৭ (১৩/১০/২০২০ইং)।
বাদী দাবি করেন, তার মেয়ের সাথে দুই ভুল নাম্বারে পরিচয় হয় কায়ছারের। এই সুযোগে গত ১২ অক্টোবর তার মেয়েকে কৌশলে চকরিয়া পৌরশহরের হোটেল ডি-ফোরের ভাড়া কক্ষে ধর্ষণ করে। রক্তাক্ত অবস্থায় একটি টমটম গাড়িতে তুলে দেয়। ঘটনা প্রকাশ না করতে বলে।
বাদী আরো জানান, মেয়ের তথ্যমতে ওই যুবক ধর্ষণ অপরাধে জড়িত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হলে থানা পুলিশে খবর দিয়ে তাকে পুলিশ হেফাজতে নেয় এবং অসুস্থ মেয়েকে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। বর্তমানে ওই যুবতী জেলা হাসপাতালেই ভর্তি রয়েছে। মেয়ের পরিবার বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট আইনানুগ ব্যবস্থাগ্রহণপূর্বক তড়িৎ হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •